শুক্রবার ২০ এপ্রিল, ২০১৮ , ৭ বৈশাখ, ১৪২৫, ৩ শাবান, ১৪৩৯

অতীত ভুলে যেতে চান সাব্বির

জানুয়ারি ১৩, ২০১৮ | ৭:৩৮ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

গত বেশ কিছু দিনে অনেক ঝড় ঝাপটার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এক কিশোর দর্শককে পেটানোর অভিযোগে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন, ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। জরিমানাও দিতে হয়েছে ২০ লাখ টাকা। ত্রিদেশীয় সিরিজে মাঠের বাইরের এসব কিছু মনে রাখতে চাইছেন না সাব্বির রহমান। তবে স্বীকার করেছেন, ‘মানুষ’ হিসেবে এই ঘটনা তার ওপর অনেক প্রভাব ফেলেছে।

জাতীয় লিগে রাজশাহীর হয়ে যা করেছিলেন, এরপর সাব্বিরকে ত্রিদেশীয় সিরিজে রাখা হবে কি না, সেই প্রশ্নও উঠে গিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত অবশ্য আর্থিক জরিমানাসহ আরও বেশ কিছু শাস্তি পেয়েছেন, জাতীয় দল থেকে নিষিদ্ধ হননি। সাব্বির এবার এসব ভুলে মাঠের খেলায় মনযোগ দিতে চান।

শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সাব্বির গণমাধ্যমে জানান, ‘মানুষ হিসেবে আমার উপর এই ঘটনা অনেক প্রভাব ফেলেছে। তবে যদি পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে চিন্তা করি, তাহলে পাস্ট ইজ পাস্ট! যা হওয়ার হয়ে গেছে, এটার প্রভাব যাতে খেলায় না পড়ে, সেটা নিয়ে চিন্তা করছি। চিন্তা করছি জাতীয় দলকে আমার জায়গা থেকে সেরাটা দিতে। কারণ আমি বাংলাদেশের পতাকা বহন করছি। চেষ্টা করছি ভালো কিছু করার জন্য।’

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরটাও খুব ভালো যায়নি। তিনটি ওয়ানডেতে শুরুটা পেয়েও পরে তা ধরে রাখতে পারেননি। সাব্বির সেই সমস্যা নিয়ে কাজ করছেন, সেটিও জানালেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি ভালোভাবেই প্রস্তুত। যদিও গত কয়েকটা ম্যাচ আমার খারাপ গেছে। আমি চেষ্টা করেছি, আমার যেটা দুর্বল জায়গা, সেটা শক্ত করার জন্য। ওটা নিয়ে কাজ করেছি।’

কিন্ত শুরুটা পেয়েও ধরে রাখতে না পারার সমস্যাটা কি টেম্পারেমেন্টের নাকি অন্য কিছুর? সাব্বিরের দাবি, তার ধরনই এমন, ‘এটা টেম্পারেমেন্টের ব্যাপার না। আমার খেলাই আসলে এমন। আগে যখন তিন নম্বরে খেলতাম, তখন ব্যাপারটা অন্য রকম ছিলো। এখন ছয়-সাত বা পাঁচ-ছয়ে খেলবো। এটা টিম ম্যানেজমেন্টের ব্যাপার। আমি যখন যেখানে খেলার সুযোগ পাবো, চেষ্টা করবো পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলার। এখন আমি চিন্তা করছি, কখন কিভাবে খেলা উচিত তা নিয়ে। যদি উইকেটে থাকি, ম্যাচ ফিনিশ করবো— ইনশাল্লাহ।’

সাব্বির জোর দিয়েই বলছেন, নিজের দুর্বলতা নিয়ে অনেক খাটছেন। বাকিটা ছেড়ে দিলেন ভাগ্যের ওপরেই, ‘আসলে দুর্বল জায়গাটা… কীভাবে বলব বলেন! কিছু স্পিন নিয়ে কাজ করেছি। কিছু ফ্রন্টফুট নিয়ে কাজ করেছি। নেটে একা এগুলো নিয়ে কাজ করেছি। যে দুর্বলতা ছিলো, তা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেছি। ম্যাচে রান পাওয়া আসলে কপালের ব্যাপার।’

সারাবাংলা/এএম

আরও পড়ুন