বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪ আশ্বিন, ১৪২৫, ৭ মুহররম, ১৪৪০

অনিশ্চয়তায় সাবিনা-কৃষ্ণার ভারত মিশন

মার্চ ২২, ২০১৮ | ৯:৪৩ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: চলতি মাসের ১৫ মার্চের মধ্যে ভারতের থাকার কথা দেশ সেরা নারী ফুটবলার সাবিনা খাতুন ও কৃষ্ণা রাণী সরকারের। ভিসার জন্য আবেদন করা হয়েছে সেই ৭ মার্চ। অর্ধমাস পেরিয়ে গেলেও দ্বিতীয় দফায়ও ভিসা হাতে পায়নি সাবিনারা। অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তাদের ভারতে লিগ খেলা।

তবে, বসে নেই বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ভারত ফুটবল ফেডারেশন ও ক্লাব সেথু এএফসির কাছে সাহায্য চেয়েছে মেইল পাঠিয়েছে বাফুফে। সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায় নি বলে সারাবাংলাকে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

বাফুফের উইমেন্স উইং প্রধান মাহফুজা আক্তার কিরণ সারাবাংলাকে জানিয়েছেন, ‘সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়নি। ভিসা পাইনি কারণ ভারতের ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন লাগবে। যেটা আমাদের হাতে নেই। আমরা সাহায্য চেয়ে মেইল করেছি। তাদের এগিয়ে আসতে হবে। তাহলে খেলতে পারবে সাবিনা-কৃষ্ণা। তারাও এগিয়ে আসতে চাইবে আশা করি।’

২৫ মার্চ থেকে শুরু হওয়া প্রথমবারের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক নারী ফুটবল লিগের ভারতীয় ক্লাব সেথু এএফসির খেলবে দুজন ফুটবলার। কথা ছিল, ১৫ মার্চের মধ্যে বাংলাদেশের সাবিনা খাতুন আর কৃষ্ণা রানী সরকারকে ক্যাম্পে যোগ দেয়ানোর।

গত ৭ মার্চ ভিসার জন্য আবেদন করেছেন সাবিনা খাতুন ও কৃষ্ণা রানী সরকার। ১৩ মার্চ অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন থেকে চিঠি দেয়া হয়েছিল ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশনকে। সাবিনা-কৃষ্ণার মন খারাপ, এখনো ভিসা না হওয়ায়।

তাই বিষণ্ণতা নারী জাতীয় দল ও অনূর্ধ্ব-১৬ নারী দলের অধিনায়কের মুখেও, ভিসা পাই নি। চেষ্টা চলছে।

তবে, এর চেয়ে অনুশীলন থামিয়ে রাখেন নি তারা। সাবিনা বলেন, ‘অনুশীলন তো চলছে। ভিসার জন্যও আবেদন করেছি। শুনছি, আজ হচ্ছে, কাল হচ্ছে। কবে ভিসা পাবো, কবে যাবো বুঝতে পারছি না’-বলেন অনুর্ধ্ব-১৬ দলের অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী সরকার।

সাবিনা-কৃষ্ণাদের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন জানালেন, শুক্রবার পর্যন্ত ভিসা মেলেনি।

৭ দল নিয়ে ভারতের উইমেন্স লিগ হবে শিলংয়ে। তামিল নাড়ুর ক্লাব সেথু এফসি তাদের বিদেশি কোটায় রেজিস্ট্রেশন করিয়েছে বাংলাদেশের এ দুই তারকা ফুটবলারকে। সাবিনাদের খেলা ২৬, ২৮, ৩১ মার্চ এবং ২, ৬ ও ৮ এপ্রিল। সাবিনা খাতুন বাংলাদেশের প্রথম নারী ফুটবলার হিসেবে খেলেছেন বিদেশে। দুই দুইবার মালদ্বীপে ঘরোয়া আসরে খেলে কাঁপিয়েছেন প্রতিপক্ষের জাল। এবার ভারতে তার সঙ্গী হচ্ছেন জাতীয় দলের আরেক ফরোয়ার্ড কৃষ্ণা রানী সরকার। অনূর্ধ্ব-১৬ দলের অধিনায়কের জন্য হবে এটা নতুন অভিজ্ঞতা।

সারাবাংলা/ জেএইচ/ এসএন

অনিশ্চয়তায় সাবিনা-কৃষ্ণার ভারত মিশন
অনিশ্চয়তায় সাবিনা-কৃষ্ণার ভারত মিশন