বৃহস্পতিবার ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক কারাগারে

ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ | ৪:২৫ অপরাহ্ণ

।। স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় শ্রেণিশিক্ষিকা হাসনা হেনাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ এ আদেশ দেন।

শুনানিতে শ্রেণিশিক্ষিকা হাসনা হেনাকে আদালতে হাজির করে আটক রাখার আবেদন করেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা। হাসনা হেনার পক্ষের আইনজীবী জাহাঙ্গীর আলম জামিন চেয়ে শুনানি করেন।

এর আগে বুধবার রাতে উত্তরার একটি হোটেল থেকে হাসনা হেনাকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি দল। গোয়েন্দা পুলিশের পূর্ব বিভাগের টিমের সহকারী কমিশনার আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়।

অরিত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় তার বাবা দিলীপ অধিকারী বাদী হয়ে মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে পল্টন থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার ৩ নম্বর আসামি হাসনা হেনা। বাকি দুই আসামি হলেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস ও প্রভাতী শাখার প্রধান শিক্ষক জিন্নাত আরা।

বুধবার বিকেলে মামলাটি পল্টন থানা থেকে অধিকতর তদন্তের জন্য ডিবিতে পাঠানো হয়।

ডিবির একটি সূত্র জানিয়েছে, ভিকারুননিসা নূন স্কুলের শিক্ষিকা হাসনা হেনা মগবাজার ডাক্তারের গলি এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার মামলায় গ্রেফতারের ভয়ে তিনি উত্তরার একটি হোটেলের কক্ষে আত্মগোপন করেন। মামলা হওয়ার পর পরিস্থিতি প্রতিকূলে ভেবে হাসনা হেনা ঢাকার বাইরে যাওয়ার পরিকল্পনাও করেছিলেন। তবে সেটা সম্ভব হয়নি।

হাসনা হেনাকে ধরতে ডিবি পুলিশ প্রথমে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের প্রভাতী শাখার বরখাস্ত এ শিক্ষিককে গ্রেফতার করেন তারা।

ডিবি কার্যালয়ে আনার পর তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিবির এক কর্মকর্তা।

সারাবাংলা/এআই/এসএমএন

Tags: , ,

অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক কারাগারে
অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক কারাগারে
অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক কারাগারে