সোমবার ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

আন্দোলনে মুখর প্রেস ক্লাব এলাকা

জানুয়ারি ১১, ২০১৮ | ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিদায়ী বছরের শেষ দিকে এসে শুরু হয় শিক্ষকদের আন্দোলন। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের আন্দোলন শেষ হতে না হতেই জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আন্দোলন শুরু করেন নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন। তারা থাকা অবস্থায় সেখানে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা। তাদের আন্দোলন এখনো চলছে।
অবশ্য এরইমধ্যে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণের একদফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরাম। এ দুই গ্রুপের মাঝখানে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করার দাবিতে আন্দোলনে যুক্ত হয়েছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সব মিলিয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাব এলাকা এখন আন্দোলন মুখর-সরগরম।

ইবতেদায়ী মাদরসা শিক্ষকরা বর্তমানে জাতীয় প্রেস ক্লাবের মূল গেটের পশ্চিম দিকটায় অবস্থান নিয়েছেন। সারাদেশের কয়েক শ’ শিক্ষক এ আন্দোলনের সঙ্গে স্বশরীরে উপস্থিত রয়েছেন। যদিও এই আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত আছেন অন্তত ৫০ হাজার শিক্ষক।

শিক্ষক নেতাদের বক্তব্য, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিষ্ঠান জাতীয় করণের দাবিতে নানামুখী আন্দোলন করে আসছেন তারা। এবার আমরণ অনশনের মাধ্যমে তারা দাবি আদায় করেই ঘরে ফিরবেন।

এদিকে বুধবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের শোভাযাত্রার মাধ্যমে আন্দোলন শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরাম। তারা সারাদেশের শিক্ষকদের প্রেস ক্লাব এলাকায় জড়ো করেছে। প্রথম দিন তারা লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করলেও শিক্ষক নেতারা বলছেন দাবি আদায় না হলে আন্দোলন আরও জোরদার করবেন তারা। সেক্ষেত্রে অতীতে যেসব সংগঠন দাবি আদায় করে ঘরে ফিরেছেন তাদের পথেও হাঁটতে পারেন তারা।

আন্দোলনে মূল মঞ্চ থেকে বুধবার দুপুরে বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদ্যাপনের অংশ হিসেবে শিক্ষকদের একটি বড় অংশ ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন। সেখান থেকে ফিরে এসে আবারও শুরু করবেন লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি। আন্দোলনের সুবিধার্থে বিকেলে প্রত্যেক শিক্ষককে রেজিস্ট্রেশনের আওতায় আনা হবে। জেলা ভিত্তিক তালিকাও করা হবে তখন।

সরকারি চাকরিতে বয়সসীমা ৩৫ করার দাবি উঠেছে দীর্ঘদিন ধরে। এ নিয়ে সরকারের মধ্যেও বিপরীতমুখী বক্তব্য এসেছে কখনো কখনো। বুধবার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ ব্যানারে আন্দোলনে নামে। ‘চাকরির বয়স বাড়ান-জীবন বাঁচান’ এই স্লোগানে ফুটপাতে যুবকদের অবস্থান নীরব হলেও তাদের প্রত্যেকের হাতে থাকা ৩৫ চায় লিফলেট। আর মূল ব্যানার দাবি আদায়ের স্বপক্ষে যেন হাজারো কথা বলছে।

এদিকে বেশ কিছুদিন ধরে জাতীয় প্রেস ক্লাব এলাকায় এমন লাগাতার আন্দোলন চলায় সংকুচিত হয়ে এসেছে সামনের সড়ক। এতে করে যানচলাচল ব্যাহত হচ্ছে নিত্যদিনই। পাশাপাশি একাধিক মাইকে বক্তব্য-স্লোগান অব্যাহত থাকায় আশপাশের এলাকায় ব্যাপকভাবে শব্দ দূষণ হচ্ছে। স্বাভাবিক কাজকর্মে বিঘ্নও সৃষ্টি হচ্ছে কখনো কখনো।

সারাবাংলা/এমএস/এনএস/আইজেকে

আন্দোলনে মুখর প্রেস ক্লাব এলাকা
আন্দোলনে মুখর প্রেস ক্লাব এলাকা
আন্দোলনে মুখর প্রেস ক্লাব এলাকা