সোমবার ২৮ মে, ২০১৮ , ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫, ১১ রমযান, ১৪৩৯

আবাহনীতেই ফিরছেন মাশরাফি

জানুয়ারি ২১, ২০১৮ | ১০:৫০ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশনের এবারের প্লেয়ার্স ড্রাফটের পর ক্রিকেট অঙ্গনে গুঞ্জন মাথা চাড়া দিয়েছিল, নবাগত দল শাইনপুকুর থেকে ঢাকা আবাহনীতে যোগ দিচ্ছেন দেশের সবচেয়ে শীর্ষ তারকা মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেই গুঞ্জন সত্য হতে চলেছে। সমঝোতার মাধ্যমে নড়াইল এক্সপ্রেস ফিরছেন আকাশী-হলুদ শিবিরে।

ক্লাবটির বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, এবারের প্লেয়ার্স ড্রাফটে দলবদলের একটি নতুন ক্লজ করা হয়েছে। সমঝোতার মাধ্যমে যেকোনো দল চাইলে ড্রাফটের পর কোনও খেলোয়াড়কে দলবদল করাতে পারবেন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে আবাহনী ক্লাব কর্তৃপক্ষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে উন্নীত হওয়া নবাগত দল শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব থেকে ম্যাশকে দলে অন্তর্ভুক্তি করাচ্ছেন।

গত শনিবার (২০ জানুয়ারি) ত্রিদেশীয় সিরিজের মধ্যে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে অন্যতম শীর্ষ এই আসরটি প্লেয়ার্স ড্রাফট হয়ে যায়। সবার আগে সুযোগ পাওয়ায় নড়াইল এক্সপ্রেসকে দলে ভেড়িয়েছিল শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। এদিকে, এবারের দলবদলে আরেকটি ক্লজ যুক্ত করেছে সিসিডিএম (ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিশ)। নিয়মে আছে, ড্রাফটের পর সমঝোতার মাধ্যমে যেকোনও ক্লাব অন্য ক্লাবে দলবদল করাতে পারবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা আবাহনীর চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমানের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নামে ক্লাব হচ্ছে শাইনপুকুর। আবার শাইনপুকুরের শীর্ষ কর্তাও সালমান এফ রহমান ও তার ছেলে শায়ন এফ রহমান। দু’জনই আবার আবাহনীরও হর্তাকর্তাদের মধ্যে আছেন। ব্যাটে-বলে হয়তো মিলে গেছে। ক্লজের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ম্যাশকে শিবিরে ভেড়িয়েছে আকাশী-হলুদরা।

তবে, ম্যাশকে দলে ভেড়িয়ে দল থেকে আরেকজন খেলোয়াড়কে ছেড়ে দিবে হবে ক্লাবকে। ১২জন আইকনদের মধ্যে ম্যাশ ছাড়াও আরও দু’জন আইকন (নাসির হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজ) আছে দলটিতে। একজনকে হয়তো শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবকে ছেড়ে দিতে হবে আবাহনীকে। তবে, কে যাচ্ছেন এই নবাগত দলটিতে তা এখনও নিশ্চিত করা যায় নি।

ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এই আসরে আকাশী-হলুদ শিবিরে ম্যাশের দলবদল নিয়ে যদিও এখনও অফিসিয়াল ঘোষণা আসে নি। তবে, ঢাকা আবাহনীর হয়ে ম্যাশের খেলাটা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। এখন শুধু অফিসিয়াল সাইনিং বাকী।

সারাবাংলা/জেএইচ

আরও পড়ুন