মঙ্গলবার ২২ মে, ২০১৮ , ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫, ৫ রমযান, ১৪৩৯

‘আবেদন করলেও তারেক রহমানকে পাসপোর্ট দেওয়া হবে না’

এপ্রিল ২৬, ২০১৮ | ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ

।। সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: ইমিগ্রেশন এন্ড পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান বলেছেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান পাসপোর্টের জন্য আবেদন করলেও তাকে পাসপোর্ট দেওয়া হবে না।

কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, ১৯৭৩ সালের আইন অনুযায়ী আবেদনের ৫ বছর আগে অন্তত ২ বছর সাজাপ্রাপ্ত থাকলে কাউকে পাসপোর্ট দেওয়া হয় না।

বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় আগারগাঁও পাসপোর্ট অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, তারেক রহমান ২০১৪ সালে তার পাসপোর্ট লন্ডন হাই কমিশনে জমা দিয়েছেন। এরপর তিনি আর কোন আবেদন করেননি। এর আগে তিনি ২০০৮ সালে দেশ ত্যাগ করার পর ২০১০ সালে লন্ডন হাই কমিশন থেকে পাসপোর্ট নবায়ন করেন।

মাসুদ রেজওয়ান বলেন, তারেক রহমান পাসপোর্ট পেতে পারেন যদি তার জাতীয় পরিচয়পত্র থাকে। সবাই জানে তারেক রহমানের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই। জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের জন্য তাকে দেশে আসতে হবে।

পাসপোর্ট ছাড়া তারেক রহমান দেশে আসবেন কিভাবে জানতে চাইলে ডিজি বলেন, তার দেশে আসা নিয়ে কোন সমস্যা নেই। তিনি চাইলে বাংলাদেশ হাই কমিশন থেকে ট্রাভেল পাস নিয়ে দেশে আসতে পারেন।

মাসুদ রেজওয়ান এর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, ২০১৪ সালে তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দেওয়ার সময় কি কারণ উল্লেখ করেছিলেন। জবাবে তিনি বলেন, তারেক রহমান কোনও কারণ উল্লেখ করেননি।

আরেক প্রশ্নের জবাবে মাসুদ রেজওয়ান বলেন, যে কোনও ব্যক্তি আদালতের মাধ্যমে দণ্ডিত হলে তিনি যাতে দেশ ত্যাগ করতে না পারেন সেজন্য সব জায়গায় নির্দেশনা পাঠানো হয়। তারেক যখন দেশ ছাড়েন তখন তিনি দণ্ডপ্রাপ্ত ছিলেন না।

নাগরিকত্বের সাথে পাসপোর্টের কোনও সম্পর্ক নেই বলেও জানান তিনি।

পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক আরও জানান,পাসপোর্ট না থাকলে নাগরিকত্ব চলে যায় না। তবে তারেক রহমান নাগরিকত্ব বাতিলের জন্য যদি আবেদন করে থাকেন সেটি ভিন্ন বিষয়। তিনি এমন আবেদন করেছিলেন কিনা সেটি তার জানা নেই।

সারাবাংলা/ইউজে/টিএম/জেডএফ

আরও পড়ুন