মঙ্গলবার ২২ মে, ২০১৮ , ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫, ৫ রমযান, ১৪৩৯

‘আমাদের হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে, পুলিশ জিডি নিচ্ছে না’

মে ১৬, ২০১৮ | ৭:০৬ অপরাহ্ণ

।। ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাবি: কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাদেরকে হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক।

বুধবার (১৬ মে) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে ছাত্রলীগ নেতারা পিস্তল নিয়ে আমাদের হত্যার হুমকি দেয়। আমরা এ বিষয়ে শাহবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে গেলে পুলিশ তা নেয়নি। তবে তারা আমাদের অভিযোগ শুনেছেন। আধা ঘণ্টা বসিয়ে রাখার পর তারা আমাদের জানিয়েছেন যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া তারা জিডি নিতে পারবে না।’

কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন থাকবে বলে জানান তিনি। এ সময় সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন এবং রাশেদ খান উপস্থিত ছিলেন।

হুমকির বিষয়ে জানতে চাইলে রাশেদ খান সাংবাদিকদের বলেন, গতকাল দিবাগত রাতে ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ইমতিয়াজ বুলবুল বাপ্পীর সঙ্গে হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানী এবং চারুকলা অনুষদের সাধারণ সম্পাদক ফাহিম ইসলাম লিমন তাকে এবং নূরুল হককে হত্যার হুমকি দেন।’

এ বিষয়ে ইমতিয়াজ বুলবুল বাপ্পী সারাবাংলাকে বলেন, ‘হলের সিনিয়র হিসেবে তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছিলো। কিন্তু তারা যে দাবি করছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। তারা আসলে বার বার মিডিয়ার সামনে আসার জন্য নতুন নতুন একটা করে কারণ বের করছেন। এরা জনপ্রিয়তা ও খ্যাতির মোহে আটকে গেছেন। দাবি পূরণ হওয়া সত্ত্বেও গণজাগরণ মঞ্চের ইমরানের মতো সাধারণ মানুষের ‘ইমোশন’ নিয়ে খেলছেন। তাদের মিডিয়ার সামনে আসতে হবে। এজন্য তাদের ইস্যু দরকার। কাউকে না পেয়ে এখন আমাকে ও আমার সংগঠনকে জড়ানো হচ্ছে।’

এর আগে দুপুর ১২ টায় হুমকি দেওয়া ছাত্রলীগ নেতাদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে থেকে মিছিল শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান ঘুরে টিএসসির রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নুরুল হক নূর। সেখানে নূর সাংবাদিকদেরকে হত্যা দেয়ার হুমকির বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন।

প্রজ্ঞাপনের দাবিতে সারা দেশের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লাস-পরীক্ষার বর্জনের কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন আন্দোলনকারীরা। ১৪ মে সোমবার পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী নতুন এই কর্মসূচি শুরু করেন তারা। বিকেলের দিকে রাজধানীর শাহবাগসহ দেশের বিভিন্ন রাজপথ অবরোধ করলে প্রচণ্ড জনভোগান্তি শুরু হয়। এদিন সন্ধ্যায় অবরোধ থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়ে শুধু ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন তারা।

সারাবাংলা/টিআর/এমআইএস/এমআই

Tags:

আরও পড়ুন