রবিবার ১৯ আগস্ট, ২০১৮, ৪ ভাদ্র, ১৪২৫, ৭ জিলহজ্জ, ১৪৩৯

উত্তপ্ত হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকা

ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮ | ৭:৩৮ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ঢাকা: ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকার রাজনৈতিক পরিস্থিতি। বর্তমান প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার দলের কর্মীরাই আর চান না তিনি পদে বহাল থাক। জুমার বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর দলের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা-কর্মীরা মত দিয়েছেন জুমা প্রেসিডেন্ট পদের জন্য অযোগ্য বিবেচিত হয়েছেন। কেবল তার দল থেকে নয়, নেলসন ম্যান্ডেলা ফাউন্ডেশনও বলে জুমা জনগণ এবং ম্যান্ডেলার স্বপ্নের দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন।

এই সংকট সমাধানে সোমবার আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস-এএনসির কার্যনির্বাহী পরিষদ এক বিশেষ বৈঠক আহ্বান করেছে। এই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, জুমাকে পদত্যাগ করতে বলা হবে কি না।

দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় এই পরিষদ প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবি করতে পারবে। কেবল তাই নয়, সংসদে আইন পাস করে তাকে অপসারণও করতে পারবে। দক্ষিণ আফ্রিকার করেসপন্ডেন্ট এন্ড্রো হার্ডিংয়ের দেওয়া তথ্যে বিবিসি এ সংবাদ জানায়।

দীর্ঘ নয় বছর ক্ষমতায় থাকার পর ৭৫ বছর বয়সী এই নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এরপর গত ডিসেম্বর মাসে জুমা দলের সভাপতির পদ থেকে সরে যেতে বাধ্য হন। তার জায়গায় আসেন সাইরিল রামাফোসা।

বিবিসি আরও জানায়, রামাফোসা বিষয়টি জানেন। তবে তিনি চান না দলের ভেতরে কোনো ধরনের ভাঙন আসুক। ২০১৯ সালে জুমার প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। রামাফোসা সবাইকে একত্রিত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আমরা সবাই একসঙ্গে কাজ করব। ম্যান্ডেলা আমাদের শিখিয়েছেন, কিভাবে দারিদ্রতা, কর্মহীনতা এবং অসমতাকে মোকাবিলা করতে হয়।

জুমার বিরুদ্ধে অস্ত্র কেনার চুক্তিতে বহুশত কোটি ডলার দুর্নীতি করার অভিযোগ আনা হয়। বিভিন্ন চুক্তিতে দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে আলাদা ১৮টি অভিযোগ গঠন করতে দেশটির আদালত আদেশ দেন। দক্ষিণ আফ্রিকার জন নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানান, গুপ্ত পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক হওয়ায় তিনি কিভাবে লাভবান হয়েছেন তা খতিয়ে দেখা দরকার।

তবে জুমার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগের কোনোটিই এখন পর্যন্ত প্রমাণিত হয়নি। জুমা এবং গুপ্ত পরিবার যৌথভাবে দুর্নীতি করেছে- এটি কেবলমাত্র অভিযোগ। এছাড়া ৯০ শতক থেকে অস্ত্র কেনাসহ আরও যে ১৮টি দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে সেগুলোরও চূড়ান্ত রায় আসেনি।

এত কিছুর পরও জুমা এখন পর্যন্ত ভীষণ জনপ্রিয় নেতা বিশেষত গ্রাম এবং তার জন্ম এলাকায়। রামাফোসা চান না জুমার সমর্থকরা কোনো ভাবে বিভ্রান্ত হোক এবং সেই প্রভাব পড়ুক আসন্ন নির্বাচনে।

বিবিসি করেসপন্ডেন্ট আরও জানান, এনইসি দাবি করলেই পদত্যাগ করতে আইনত তিনি বাধ্য নন। তাই জুমা চাইলে প্রেসিডেন্ট পদে থাকতে কোনো বাধা নেই।

সারাবাংলা/এটি

উত্তপ্ত হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকা
উত্তপ্ত হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকা