রবিবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮ আশ্বিন, ১৪২৫, ১২ মুহররম, ১৪৪০

উড়ন্ত বাংলাদেশের সামনে এবার হংকং

মার্চ ১১, ২০১৮ | ৫:৩৪ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

প্রস্তুতি ম্যাচে কাজাখস্তান ও মিশনের প্রথম ম্যাচে থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে আত্মবিশ্বাসে টুইটুম্বুর জিমি-চয়নরা। এবার সামনে শক্তিশালী হংকং। জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় বাংলাদেশ জাতীয় হকি দল। আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুখোমুখি হবে দুইদল।

এই দলের বিপক্ষে মোট ১৩ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে লাল-সবুজ জার্সিদের জয় ৮, হার ৪ বার এবং একবার ড্র। যে কারণে শনিবার অলস সময় না কাটিয়ে জিমিবাহিনী হোটেলের সামনেই শারীরিক অনুশীলন করে। খেলোয়াড়দের মোটিভেট করেন কোচ মাহবুব হারুন, ম্যানেজার টুটুল কুমার নাগ।

সহকারী ম্যানেজার খাজা তাহের মুন্না জানান, ‘আমরা প্রতিপক্ষ সবাইকে সিরিয়াসভাবে নিচ্ছি। থাইল্যান্ডকে হারানোর পর হংকংকেও বড় ব্যবধানে হারানোর পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের। খেলোয়াড়রা টাইট ডিসিপ্লিনের মধ্যে রয়েছে। সবাই চ্যাম্পিয়নের লক্ষ্য নিয়েই অনুশীলনে ঘাম ঝরাচ্ছে।

ওমানের মাস্কটে সুলতান কাবুস কমপ্লেক্সে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় দুই দলের এ ম্যাচটি শুরু হবে। জয়ের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন গোলরক্ষক অসীম গোপ ও ডিফেন্ডার আশরাফুল ইসলাম। তবে কোচ মাহবুব হারুন হংকংয়ের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচের আভাস দিয়েছেন। বাংলাদেশের মতো জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে হংকং।

প্রথম ম্যাচে র‌্যাঙ্কিংহীন আফগানিস্তানকে ১৯-০ গোলে উড়িয়ে শুরু করেছে সাঙ কিং, ফেলিক্সরা। বাংলাদেশের বিপক্ষে তাই ফিল্ডে নামার আগে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে দলটি। তবে শক্তি সামর্থ্য, র‌্যাঙ্কিং, অভিজ্ঞতা সব থেকে হংকংয়ের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ। হংকংয়ের র্যাংকিং যেখানে ৪৫, সেখানে বাংলাদেশের ৩০। তবে র্যাংকিং নিয়ে ভাবছেন না বাংলাদেশের কোচ, ‘হংকং খুব শক্তিশালী দল। অংশ নেয়া দলগুলোর মাঝে মনে হয়েছে হংকং বেশ ভালো প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে। তা ছাড়া প্রথম ম্যাচেই দলটি ১৯-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে।’

এই দলে পিসি স্পেশালিস্ট সাঙ কিং কান, হো চিং এবং ফেলিক্সিরের মতো খেলোয়াড় রয়েছে। এর মধ্যে সাঙ ৪ গোল দিয়ে রয়েছে গোলদাতাদের তালিকায় শীর্ষে। হো চিং ও ফেলিক্স গোল করেছেন ৩টি করে। তাই এই তিনজনের ওপর যে বাড়তি নজর থাকবে হারুন শিষ্যদের সেটা মুখে না বললেও অনুমেয়।

জয়ের প্রত্যাশায় গোলরক্ষক অসীম গোপ বলেন, ‘থাইল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা ভালো খেলে জয় পেয়েছি। হংকংয়ের বিপক্ষেও খেলতে চাই।’ আশরাফুলের কথায়, ‘থাইল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা অনেক পিসি পেয়েছি। কিন্তু সেগুলো গোলে পরিণত করতে পারেনি। হংকংয়ের বিপক্ষে এই ভুল করতে চাই না।’

প্রথম ম্যাচে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে পিসি থেকে এসেছে মাত্র একটি গোল। বাকি চারটি ফিল্ড গোল। চার অর্ধেই গোল পেয়েছে জিমিরা। প্রথম গোলটি এসেছে সারোয়ার হোসেনের স্ট্রিক থেকে। বাকি চারটি গোল করেছেন হাসান যুবায়ের নিলয়, মিলন হোসেন, রোমান সরকার ও মামুনুর রহমান চয়ন।

এছাড়াও ওমানে চলতি এশিয়ান গেমসের বাছাই পর্বে জাজ হিসেবে গেলেন হাসান শিমুল। আর নিরপেক্ষ আম্পায়ার হিসেবে শাহবাজ। উভয়েই নিজ নিজ ক্ষেত্রে নজর কাড়লেন। তবে বিশেষভাবে বাহবা পেলেন শাহবাজ শ্রীলঙ্কা-ওমান ও শ্রীলঙ্কা-কাজাখস্তান ম্যাচ পরিচালনা করে। আর

সারাবাংলা/জেএইচ

উড়ন্ত বাংলাদেশের সামনে এবার হংকং
উড়ন্ত বাংলাদেশের সামনে এবার হংকং