রবিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং , ১২ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

গ্রন্থমেলায় তিন তরুণের বই

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ | ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ।।  

বাঙালী হলেই যে ইংরেজিতে লেখা যাবেনা, এমনটা নয়। মনের ভাব প্রকাশ করা যায় যে কোন ভাষাতেই। তেমনই পরিচয়ের সাক্ষ্য দিতেই প্রকাশিত হলো দেশের তিন তরুণ কবি’র তিনটি পৃথক বই। তিনটি বইয়ের ভাষাই ইংরেজি। এর মধ্যে শায়রা আফরিদা ঐশী’র ইংরেজি কাব্যগ্রন্থ ‘অন ডেইজ লাইক দিস’, রাহুল হকের ‘ফাইন্ডিং চি’ এবং মুগ্ধ চন্দ্রিকা’র ‘ষ্টিজিয়ান সেরেন্ডিপিটি’।

রোববার [১০ ফেব্রুয়ারি] বিকেলে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের সিনেপ্লেক্সে এই তিন কবিতার বইয়ের একসঙ্গে প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। যে উৎসবে বইয়ের মোড়ক উন্মোচনের পাশাপাশি ছিলো কবিকণ্ঠে কবিতা পাঠ ও উপস্থিত বিভিন্ন কাব্যপ্রেমীদের সেই কবিতা নিয়ে আলোচনা এবং আড্ডা।

কবি ও প্রাবন্ধিক রাজু আলাউদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয় এই প্রকাশনা উৎসব। যাতে তরুণ কবিদের কণ্ঠে কবিতা পাঠের সঙ্গে কবিতা নিয়ে উপস্থিত কাব্যপ্রেমীদের অভিনব আড্ডায় ধরা দেয় প্রাণপ্রাচুর্যের এক অন্যরকম আবহ। যাতে উঠে আসে-কবিদের কবিতা লেখার অনুভূতি, কেন কবিতা লেখা, কবিতা এবং সমকালীন শিল্প সাহিত্য নিয়ে তাদের উপলব্ধি, ভাবনা এবং দায়বদ্বতা নিয়েও।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে তিন তরুণ লেখক বলেন, ইংরেজি কবিতার মাধ্যমে মানুষের বিচিত্র উপলব্ধি, বিষয় বৈচিত্র আর উপস্থাপনের মুন্সিয়ানায় বাংলা কবিতাকে বিশ্ব সাহিত্যে একটি স্বতন্ত্র অবস্থান দেওয়া সম্ভব। একই সাথে বিশ্বমানের কবিতার বিষয় ও গতিপ্রকৃতির সঙ্গেও সাম্প্রতিক বাংলা কবিতার মেল বন্ধনের বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে।

আয়োজনে কথা বলেন অনুবাদক জামিল হোসেন। তিনি বলেন, কবিতার সংক্ষিপ্ত প্রকাশে আবেগকে সংহত করে খুব অল্প শব্দে দ্যোতনা ছড়ানোর ব্যাপার আছে এই কবিদের। অনুষ্ঠানে এসময় উপস্থিত ছিলেন তিন তরুণ লেখকের অভিভাবকরাও। এসময় নজরুল সংগীত শিল্পী লীনা তাপসী খান, অন্যপ্রকাশের প্রকাশক মাহজারুল ইসলামসহ বিশিষ্টজনেরাও উপস্থিথ ছিলেন।

সারাবাংলা/টিএস

Tags: , ,

গ্রন্থমেলায় তিন তরুণের বই
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন