মঙ্গলবার ২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং , ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

ছাত্রলীগের ‘অনুরোধে’ ঢাবি’র গাড়িতে এলেন ছাত্রদল নেতারা!

সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৮ | ২:০৩ অপরাহ্ণ

।। সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতাদের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বৈঠক চলছে ঢাবি ক্যাম্পাসে। সেই বৈঠকে অন্যান্য ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে যোগ দিয়েছে ছাত্রদলও। তবে বাকি ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতারা নিজেদের উদ্যোগে বৈঠকে যোগ দিলেও ছাত্রদল এসেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে চড়ে!

জানা গেছে, ছাত্রলীগের অনুরোধেই ছাত্রদল নেতাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করে নিয়ে আসা হয়। এ নিয়ে বৈঠকের আগের মধ্যরাতে ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠকও করেছে ছাত্রলীগ। ছাত্রদল যেন বৈঠকে যোগ দেওয়ার সূত্র ধরে ক্যাম্পাসে কোনো ধরনের শোডাউন করার সুযোগ না পায়, সে কারণেই এমন সিদ্ধান্ত ছাত্রলীগের।

আরও পড়ুন- ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ছাত্রসংগঠনগুলোর সঙ্গে বসেছে ঢাবি প্রশাসন

রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে বৈঠক শুরু হয় ছাত্রলীগ, ছাত্রদলসহ বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি কমিটির সভাপতি ও সেক্রেটারিদের। উপাচার্য কার্যলয় সংলগ্ন অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে চলমান এই বৈঠকে সবার আগে যোগ দেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। পরে অন্যান্য ছাত্র সংগঠনের নেতারাও হাজির হন বৈঠকে।

এর মধ্যে সকাল সোয়া ১১টার দিকে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজিব আহসান ও ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার সিদ্দিকী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে চড়ে আসেন বৈঠকে যোগ দিতে। এ সময় উপস্থিত সবাই ধারণা করছিলেন, ছাত্রলীগের রোষানলে যেন পড়তে না হয়, সে কারণেই বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করে আনা হয়েছে তাদের।

তবে জানা গেছে, ছাত্রলীগের উদ্যোগের কারণেই ছাত্রদল নেতাদের আনা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে। শনিবার মধ্যরাতে এ বিষয়ে ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি শাখার শীর্ষ চার নেতা। ওই বৈঠকে তারা উপাচার্যকে জানান, ছাত্রদলের প্রতিনিধিদের বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করে ক্যাম্পাসে নিয়ে আসতে হবে এবং বৈঠক শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করেই তাদের রেখে আসতে হবে।

ঢাবি শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, এই সভাকে কেন্দ্র করে ছাত্রদল যেন ক্যাম্পাসে শোডাউন করতে না পারে, মিছিল করতে না পারে এবং ক্যাম্পাসে যেন তারা তাদের উপস্থিতি জানান দিতে না পারে, সে কারণেই ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে উপাচার্যকে অনুরোধ করা হয়েছে যেন ছাত্রদল নেতাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করে আনা হয়। অন্যদিকে, ছাত্রদলের কোনো ধরনের কর্মকাণ্ডের কারণে এই বৈঠক যেন বানচাল না হয়, সে কারণেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সতর্কতার কারণে ছাত্রদল নেতার কারণে গাড়ির ব্যবস্থা করে

এ বিষয়ে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান সারাবাংলাকে বলেন, ‘এটা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সিদ্ধান্ত। তারা দায়িত্ব নিয়ে আমাদের এনেছে, দিয়েও আসবে।’

বৈঠকে প্রতিটি ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে আমন্ত্রণ জানানো হলেও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক এ বৈঠকে যোগ দেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আকরামুল হাসান বলেন, দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই তাদের দু’জন প্রতিনিধি বৈঠকে যোগ দিয়েছেন।

এদিকে, শনিবার গভীর রাতে ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠকের কথা নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার একাধিক নেতা। তারা জানান, ওই বৈঠকে কেবল ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাবি শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকই ছিলেন। বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে, সেটা কেবল তারাই বলতে পারবেন।

ছাত্রদল নেতাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িতে করে নিয়ে আসা সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাবির সহকারী প্রক্টর আব্দুর রহিম সারাবাংলাকে বলেন, প্রক্টর গোলাম রাব্বানী এ সম্পর্কে বলতে পারবেন। ঢাবি প্রক্টর বৈঠকে উপস্থিত থাকায় এ বিষয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

সারাবাংলা/ইউজে/কেকে/টিআর

ছাত্রলীগের ‘অনুরোধে’ ঢাবি’র গাড়িতে এলেন ছাত্রদল নেতারা!
ছাত্রলীগের ‘অনুরোধে’ ঢাবি’র গাড়িতে এলেন ছাত্রদল নেতারা!
ছাত্রলীগের ‘অনুরোধে’ ঢাবি’র গাড়িতে এলেন ছাত্রদল নেতারা!