বুধবার ২৪শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং , ৯ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সতর্ক বাংলাদেশ

জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ | ৭:৫৯ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা : জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশ সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে। বাংলাদেশের উদ্যোগের সাথে সাথে বাইরের স্টেক হোল্ডারস, উন্নয়ন সহযোগী, অর্থায়ন প্রতিষ্ঠান, প্রযুক্তি প্রদানকারি প্রতিষ্ঠান সকলেরই সহযোগিতা প্রয়োজন। সম্মিলিত ও সমন্বিত প্রচেষ্টায় বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের অস্থায়ী বা স্থায়ী নেতিবাচক প্রভাব দ্রুত মোকাবেলা সম্ভব।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ আজ সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত ‘ইন্টারন্যাশনাল রিনিউভেল এনার্জি (আইরিনা) এর মিনিষ্ট্রারিয়াল ডিসকাশন সেশন ‘অ্যাডভান্সিং রিনিউবেল এনার্জি কমপোনেন্টস অফ ন্যাশসাল ডিটারমাইন্ড কনট্রিবিউশন: বাংলাদেশ পাসপেক্টিভ’ শীর্ষক বিষয়ে বকতৃতায় এসব কথা বলেন। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় আমাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং কার্বন নিঃসরণ আরও কমানোর উপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ন্যাশনাল ডিপারমাইন্ড কন্টিবিউশন (এনডিসি) প্রস্তাব করেছে সেখানে শর্তাধীন ও শর্তহীনভাবে বাংলাদেশের সম্পদ দিয়ে দুর্যোগ মোকাবেলা করার প্রস্তাতি নেয়া হয়েছে। নিজস্ব সম্পদ দিয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে গ্রীন হাউজ গ্যাস নিঃসরণ বিদ্যুৎ, পরিবহণ ও শিল্প খাতে ১২ মে.টন কার্বন ডাই অক্সাইড কমানো এবং আন্তর্জাতিক সহায়তা নিয়ে এ নিঃসরণ ৩৬ মে.টন কমানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়ন গাইডলাইন ও নেট মিটারিং গাইড লাইন গ্রহণ করা হয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিস্তার ও কাঠামোগত অবস্থায় আনার জন্য স্রেডা কাজ করছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি প্রসারে আইরিনা ইন্টারন্যাশনাল সোলার এলাইন্স, কম কার্বন নিঃসরণ প্রযুক্তি, দ্রব্য, পদ্ধতি, সেবা ও অবকাঠামো খাতের উন্নয়ন বিনিয়োগ এর জন্য জাপানের সাথে জয়েন্ট ক্রেডিটিং ম্যাকানিজম  স্থাপন প্রভৃতি আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে বাংলাদেশ কাজ করছে।

আফগানিস্তানের জ্বালানি ও পানি বিষয়ক মন্ত্রী আলী আহমদ ওসমানির সঞ্চালনায় ইথিওপিয়ার পানি, সেচ ও বিদ্যুৎ মন্ত্রী ড. সিলেশী বেকেল আওলাচিও,গায়ানার পাবলিক অবকাঠামো বিষয় মন্ত্রী ডেভিড পিটারসন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের জলবায়ু পরিবর্তন এবং পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী ড. থানি আহমেদ আল জাইয়েদী বক্তব্য রাখেন।

সারাবাংলা/এইচএ/জেডএফ

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সতর্ক বাংলাদেশ
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সতর্ক বাংলাদেশ
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় সতর্ক বাংলাদেশ