শনিবার ১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

জার্মানিকে স্তব্ধ করে মেক্সিকোর জয়

জুন ১৭, ২০১৮ | ৯:৩৮ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক।।

গতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ মেক্সিকো, প্রথম ম্যাচে হয়তো জার্মানির অনায়াস জয় আশা করেছিলেন অনেকে। কিন্তু খেলাটা যখন ফুটবল, তখন অঘটন তো হতেই পারে। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে স্তব্ধ করে প্রথম ম্যাচেই মেক্সিকো ছিনিয়ে নিল ১-০ গোলের দুর্দান্ত এক জয়।  হার দিয়েই বিশ্বকাপ ধরে রাখার মিশন শুরু করল জার্মানি।

গত সাত বারের মধ্যে তিন বারই বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা প্রথম ম্যাচে জয় পায়নি। তবে এই ম্যাচে যে অমন হবে, সেটার আভাস পাওয়া যাচ্ছিল শুরু থেকে। ম্যাচের শুরু থেকেই জার্মানিকে চেপে ধরে মেক্সিকো, সেটার সুফল পেয়ে যায় ৩৪ মিনিটে।  একটি দারুণ প্রতি আক্রমণ থেকে বল পেয়েছিলেন চিচারিতো। তাঁর পাস থেকে বল পেয়ে দারুণ এক ফিনিশে জালে জড়িয়ে দেন তরুণ প্রতিভা হারভিং লোজানো।

ম্যাচের শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছিল মেক্সিকোর। ম্যাচের ২ মিনিটেই জেরোম বোয়াটেংয়ের ট্যাকলে গোলবঞ্চিত থেকে গেছে মেক্সিকো।

১৪ মিনিটে মরেনোর শট আরেকটু হলেই ঢুকে যাচ্ছিল জালে। ধরে ফেলেছেন ম্যানুয়েল নয়্যার। মিনিট খানেক পর জশুয়া কিমিখের ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে আরেকটু হলেই গোল দিয়ে ফেলেছিলেন মেক্সিকোর সালসিদো, অল্পের জন্য চলে যায় পোস্টের বাইরে।

১৮ মিনিটে কার্লোস ভেলার পাস থেকে বল পেয়ে বক্সের ভেতর ঢুকে পড়েছিলেন হাভিয়ের চিচারিতো হার্নান্দেজ, কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিতে পারেননি শট। ২০ মিনিটে টিমো ভের্নারের শট ধরে ফেলেছেন মেক্সিকো গোলরক্ষক গিলের্মো ওচোয়া।

২২ মিনিটে ড্রাক্সলারের পাস থেকে বল পেয়ে বাঁ পায়ে শট নিয়েছিলেন টনি ক্রুস, কিন্তু ওচোয়া তা ঠেকিয়ে দেন। ২৫ মিনিটে কিমিখ দেখেছেন প্রথম হলুদ কার্ড।

২৬ মিনিটে আবার প্রতি আক্রমণ থেকে জার্মানদের ভয় ধরিয়েছিল মেক্সিকো, কিন্তু দূর থেকে নেওয়া শট চলে গেছে বারের ওপর দিয়ে। ২৭ মিনিটে লায়ুনের দুর্বল শট ধরতে কোনো সমস্যাই হয়নি নয়্যারের।

৩৪ মিনিটে দুর্দান্ত একটা থ্রু বাড়িয়েছিলেন কার্লোস ভেলা, একটুর জন্য পা লাগাতে পারনেনি লায়ুন।

৩৮ মিনিটে টনি ক্রুসের ফ্রিকিকে হাত লাগিয়েছিলেন ওচোয়া। সেটা পোস্টে লেগে ফিরে আসে, অল্পের জন্য সমতা ফেরানো হয়নি জার্মানির।

৪৫ মিনিটে বক্সের মাথা থেকে বাঁ পায়ে শট নিয়েছিলেন এই অর্ধের ম্যাচসেরা ভেলা। একটুর জন্য চলে যায় বাইরে দিয়ে।

৬৫ মিনিটে বোয়েটাংয়ের ক্রসে দারুণ একটা ব্যাক ভলি করেছিলেন কিমিখ। কিন্তু অল্পের জন্য তা চলে যায় পোস্টের ওপর দিয়ে।

৬৮ মিনিটে কর্নার থেকে বল পেয়ে ভের্নারের শট একটুর জন্য চলে যায় বার উঁচিয়ে।

৭৬ মিনিটে কিমিখের পাস থেকে বক্সের ঠিক বাইরে থেকে শট করেছিলেন ক্রুস। কিন্তু তাঁর বাঁক খাওয়ানো শট একটুর জন্য চলে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।

৭৮ মিনিটে মেক্সিকোর লায়ুন আবার বল পেয়েছিলেন প্রতি আক্রমণ থেকে। কিন্তু বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শত চলে যায় পোস্টের ওপর দিয়ে।

৮১ মিনিটে আবারও সুযোগ লায়ুনের, এবার শত চলে গেছে পোস্টের পাশ দিয়ে।

৮৩ মিনিটে ক্রুসের দূর থেকে নেওয়া শট আবারও ঠেকিয়ে দিয়েছেন ওচোয়া।

৮৭ মিনিটে অসাধারণ একটা সুযোগ পেয়েছিলেন মারিও গোমেজ, কিন্তু ফাঁকায় হেড পেয়েও কাছ থেকে তা পোস্টে রাখতে পারেননি।

৮৮ মিনিটে ব্রান্ডটের নেওয়া গোলার মতো ভলি পোস্টে চুমু খেয়ে চলে যায় বাইরে। শেষ দিকে চেষ্টা করেও আর গোল শোধ করতে পারেনি জার্মানি, পরের পর্বে ওঠাটা এখন অনেক কঠিন হয়ে গেল তাদের।

গ্রুপ ‘এফ’ এর পয়েন্ট টেবিল:

জার্মানিকে স্তব্ধ করে মেক্সিকোর জয়
জার্মানিকে স্তব্ধ করে মেক্সিকোর জয়
জার্মানিকে স্তব্ধ করে মেক্সিকোর জয়