বুধবার ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

‘জোর করে খালেদা জিয়ার ছাড়পত্র লিখিয়ে নিয়েছে’

নভেম্বর ৮, ২০১৮ | ২:১৩ অপরাহ্ণ

।। স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সুস্থ না হলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দিয়ে জোর করে ছাড়পত্র লিখিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে নাইকো দুর্নীতি মামলার হাজিরা শেষে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে সাংবাদিকদের কাছে মির্জা ফখরুল এ অভিযোগ করেন। এই কারাগারে অস্থায়ীভাবে স্থাপিত ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ মাহমুদুল কবীরের আদালতে নাইকো দুর্নীতি মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। মামলার অন্যতম আসামি খালেদা জিয়া।

মামলার শুনানি শেষে মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেন, আদালতের ভেতরে দেখলাম খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। তিনি হুইল চেয়ারেও ঠিকমতো বসতে পারেন না। এরকম শারীরিক অবস্থায় আদালতে হাজির করাটা অত্যন্ত অমানবিক।

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, তার (খালেদা জিয়া) যে শারীরিক অবস্থা, তাতে মনে হয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দিয়ে জোর করে তার ছাড়পত্র লিখিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এদিকে, প্রায় একই সময়ে আদালত থেকে বেরিয়ে কারাগারের সামনে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল সাংবাদিকদের খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ৈ বিপরীত প্রতিক্রিযয়া দেন। তিনি বলেন, আদালতে খালেদা জিয়াকে সুস্থ দেখেছি, উৎফুল্ল দেখেছি। তার কোনো অসুস্থতা চোখে পড়েনি।

জোর করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দিয়ে ছাড়পত্র লিখিয়ে নেওয়া হয়েছে— বিএনপি মহাসচিবের এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপক্ষের এই আইনজীবী বলেন, ছাড়পত্র তো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিষয়। তারা সুস্থ মনে করেছে বলেই ছাড়পত্র দিয়েছে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় খালেদা জিয়াকে। প্রায় একমাস সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা ৫০ মিনিটে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ীভাবে স্থাপিত ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ মাহমুদুল কবীরের আদালতে নাইকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি শুরু হয়। শুনানিতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ শারীরিকভাবে অসুস্থ জানিয়ে শুনানির তারিখ পেছানোর জন্য আদালতকে অনুরোধ জানান। কিন্তু এর বিরোধিতা করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল। পরে মামলার আংশিক যুক্তিতর্ক করেন মওদুদ আহমদ।

আরও পড়ুন-

কারাগারের পথে খালেদা জিয়া

এক মাস পর কারাগারে ফিরলেন খালেদা জিয়া

‘আমি একা কেন, শেখ হাসিনা কোথায়?’ আদালতকে খালেদা

নাইকো দুর্নীতি মামলার শুনানি শেষে কারাগারে খালেদা জিয়া

সারাবাংলা/এসএসআর/এআই/টিআর

‘জোর করে খালেদা জিয়ার ছাড়পত্র লিখিয়ে নিয়েছে’
‘জোর করে খালেদা জিয়ার ছাড়পত্র লিখিয়ে নিয়েছে’
‘জোর করে খালেদা জিয়ার ছাড়পত্র লিখিয়ে নিয়েছে’