শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৬ আশ্বিন, ১৪২৫, ৯ মুহররম, ১৪৪০

টাইগার হতে চান রোডস

জুন ২০, ২০১৮ | ৫:৪৪ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

স্টিভ রোডসের জন্য সবকিছুই এখন অন্যরকম। এতোদিন কাজ করেছেন কাউন্টিতে, ইংল্যান্ড জাতীয় দলের সঙ্গে কাজ করেছেন খন্ডকালীন হিসেবে। তবে বাংলাদেশে আসতে পেরে যে রোমাঞ্চিত, সেটা কোচ হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর পরেই জানিয়েছিলেন। বুধবার (২০ জুন) জাতীয় দলের সঙ্গে প্রথমবারের মতো অনুশীলন করলেন। সরাসরিই বললেন, একজন টাইগার হতে চান তিনি।

অভিজ্ঞতাটা একেবারেই অন্যরকম হওয়ার কথা রোডসের জন্য। এর আগে উস্টারশায়ারের দায়িত্বে ছিলেন এক দশক, কিন্তু কাউন্টি আর জাতীয় দলের ক্রিকেট তো এক নয়। বাংলাদেশের উন্মাদনা এখনো চোখে দেখেননি বটে, তবে প্রচারমাধ্যমের ঔৎসুক্য দেখে সেটার আঁচ হয়তো কিছুটা পেয়ে থাকবেন। রোডস নিজেও সেটা বুঝতে পারছেন ভালোমতোই।

তিনি জানান, ‘আমি এটা খুব ভালোভাবে জানি, বাংলাদেশের মানুষ কতটা ক্রিকেটপাগল। এখানে আমার সাথে মিল আছে, কারণ আমি নিজেও ক্রিকেটেই বুঁদ হয়ে থাকি। আমি ইংল্যান্ডে থাকার সময় দেখেছি এখানকার আবেগ। আমি প্রত্যাশাটা জানি ভালোমতোই, নিজের শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করছি। আমি দলের জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো, সেটাই করার চেষ্টা করব।’

এখন পর্যন্ত মাঠের উন্মাদনা চোখে না পড়লেও ক্রিকেট-প্রেমের কিছু ছটা দেখেছেন, ‘আমি সকালে দেখেছি বাচ্চারা ক্রিকেট খেলছে। আমারও ইচ্ছে করছিল ছুটে ওদের সাথে যোগ দেই। কারণ ক্রিকেট খেলাটা ওদের মতো আমার ভেতরেই আছে।’

রোডস আরও বলেন, টাইগারদের একজনই হতে চাই। এটা দারুণ একটা সুযোগ। আমি কাউন্টিতে ছিলাম অনেক দিন, ইংল্যান্ড দলের সঙ্গেও ছিলাম। বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজেও কাজ করেছি। এবার আমি আন্তর্জাতিক সিরিজের চ্যালেঞ্জ নিতে চাই, আমি মনে করি বাংলাদেশে বেশ কিছু দারুণ ক্রিকেটার আছে। সবচেয়ে বড় ব্যাপার, আমি এখন টাইগার হতে চাই, সেটাই হতে পারে শিরোনাম। আমি অনেক দিন ধরে ক্রিকেট খেলেছি, কাউন্টিতে খেলেছি। যে দলের সঙ্গেই থাকি না, আপনাকে নিজের সেরাটা দিতে হবে। ইংল্যান্ডে গিয়ে আমরা কী করতে পারি, সেটাই দেখার বিষয়। তবে আপাতত আমি একজন টাইগার।’

আজ থেকেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য অনুশীলন শুরু করেছে বাংলাদেশ। চলবে আরও তিন দিন, ২৩ জুন দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ। ৪ জুলাই থেকে শুরু হবে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথমটি।

সারাবাংলা/এএম/এমআরপি

টাইগার হতে চান রোডস
টাইগার হতে চান রোডস