বুধবার ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

ঢাকার বাইরেও দর্শক টানছে ‘দেবী’

অক্টোবর ২০, ২০১৮ | ৬:০৭ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট।।

প্রথমবারের মতো সিনেমা পরিচালনা করেছেন অনম বিশ্বাস। প্রথম সিনেমা হিসেবে তিনি বেছে নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস। সিনেমার নাম ‘দেবী’। প্রত্যাশার চাপ মাথায় দিয়ে শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) সারাদেশের ২৯ টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি।

মুক্তির আগেই ঢাকার সিনেমা হলগুলোতে প্রথম দুই দিনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছিল। অনেক দর্শককে টিকিট না পেয়ে আক্ষেপ নিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে দেখা গিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় মুক্তির দিন প্রত্যাশা অনুযায়ী ঢাকার সবগুলো সিনেমা হলে ‘হাউজফুল’ সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেয়া হয়। রাজধানীর বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্স, ব্লকবাস্টার সিনেমাস, বলাকা, শ্যামলী সিনেমা, মধুমিতাসহ বাকি হলগুলোতে সিনেমাটি দেখার জন্য মানুষের লম্বা লাইন প্রত্যক্ষ করা গেছে।

তবে ঢাকার বাইরের প্রেক্ষাগৃহগুলোর কি অবস্থা? উত্তর জানতে যোগাযোগ করা হয় চট্টগ্রামের আলমাস সিনেমা হলে। সারাবাংলার সঙ্গে কথা বলেন সুপারভাইজার সাবের আহমেদ। তিনি জানান, ‘স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা সিনেমাটি দেখতে আসছেন। অন্য সাধারণ দর্শক আসছেন না। তবে অন্যান্য সিনেমার থেকে সিনেমাটি ভালো চলছে। এতে আমরা খুশী। এখন পূজার ছুটির কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। খুললে আরও দর্শক আসবে বলে মনে করি।’

সিনেমা হলের নিজস্ব উদ্যোগে পত্রিকায় বিজ্ঞাপনসহ মাইকিং করে প্রচারণা করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে আরও প্রচারণা করা হতে পারে বলে তিনি জানান।

খুলনার শঙ্খ সিনেমা হলেও চলছে ‘দেবী’। দীর্ঘদিন ধরে খুলনার মানুষের সিনেমা দেখার চাহিদা মিটিয়ে আসছে সিনেমা হলটি। সিনেমা হলের ম্যানেজার রেজাউল বলেন, ‘নতুন নতুন দর্শক সিনেমাটি দেখতে আসছেন। এটা ভালো দিক যে, নতুন দর্শক তৈরী হচ্ছে। বিশেষ করে নারী দর্শক বেশী আসছেন। দিন গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে দর্শক না বাড়লেও, কমবে না।

এদিকে একই নগরীর লিবার্টি সিনেমা হলের ম্যানেজার মহিউদ্দিন পান্না জানান, ‘প্রথম দিনের সেল ভালো ছিল। হাউজ ফুল না গেলেও অনেক লোক আসছেন সিনেমাটি দেখতে। এই সিনেমার দর্শক আলাদা। আপার ক্লাসের লোকজন দেখতে আসছেন।’

এর আগে সিনেমার পরিচালক অনম বিশ্বাস সারাবাংলাকে বলেছিলেন, ‘এই সিনেমাটি সবার জন্য নয়। হুমায়ূন আহমেদ ভক্তদের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে সিনেমাটি। তারা যদি সিনেমা হলে আসেন দলবেধে তাহলে সিনেমাটি ব্যবসায়িক সফলতা পেতে বাধ্য। তবে সিনেমাটি সব শ্রেণির দর্শকের দেখা উচিত।’

সপ্তাহের এখনো বেশ কয়েকদিন বাকি আছে। হয়ত পূজার ছুটি কাটিয়ে অনেকে ‘দেবী’ দেখতে প্রেক্ষাগৃহমুখী হবেন। এখন দেখার বিষয় সপ্তাহ শেষে ‘দেবী’ কতোটা পূজনীয় হতে পারে!

সারাবাংলা/আরএসও

Tags: ,

ঢাকার বাইরেও দর্শক টানছে ‘দেবী’
ঢাকার বাইরেও দর্শক টানছে ‘দেবী’
ঢাকার বাইরেও দর্শক টানছে ‘দেবী’