শনিবার ১৮ আগস্ট, ২০১৮, ৩ ভাদ্র, ১৪২৫, ৬ জিলহজ্জ, ১৪৩৯

তথ্য প্রযুক্তি অাইন বুঝে শুনেই করেছি: বাণিজ্যমন্ত্রী

জানুয়ারি ৩০, ২০১৮ | ৩:৩৪ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

তথ্য প্রযুক্তির নতুন আইন আমরা বুঝে শুনে করেছি। এতে সাংবাদিকদের কোনো ক্ষতি হবে না। সত্য রিপোর্ট বা সঠিক খবর দিলে সাংবাদিকদের কোনো সমস্যা হবে না। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এই কথা বলেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) এর নবনির্বাচিত পরিচালনা পর্ষদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

পরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সঙ্গে সংলাপের কোনো প্রয়োজন নেই। সংবিধান অনুযায়ী যথা সময়ে নির্বাচন হবে। এ নিয়ে সংলাপ বা প্রস্তাবের কোনো সম্ভাবনা নেই। পৃথিবীর অন্যান্য দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, বাংলাদেশেও একই ভাবে নির্বাচন হবে। ২০১৪ সালের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নিজেই নির্বাচনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন, বিএনপি তা গ্রহণ করেনি। ফলে এবার আর সেই সুযোগ নেই। যথা সময়ে নির্বাচন হবে এবং সে নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে বলে আমরা নিশ্চিত।’

এছাড়া, অন্য প্রসঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘২০২১ সালের মধ্যে আমাদের রফতানি আয় ৬০ বিলিয়ন ডলার হবে। এই সময়ের মধ্যে আমরা মধ্যম আয়ের দেশেও পরিণত হবো। আমাদের পোষাক কারখানাগুলো এখন আন্তর্জাতিক মানের। বিশ্বের প্রথম ১০টি কোম্পানির মধ্যে, প্রথম তিনটিই বাংলাদেশে অবস্থিত। রানা প্লাজা ধসের পর এ শিল্পের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছিল, তা আমরা কাটিয়ে উঠতে পেরেছি। বর্তমানে মাত্র ২ শতাংশ পোষাক কারখানা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে।’

ডিসিসিআই নতুন সভাপতি আবুল কাশেম খান বলেন, ‘আমাদের অর্থনীতিতে অনেক অর্জন থাকার স্বত্ত্বেও আমরা অন্যান্য প্রতিবেশি প্রতিদ্বন্দ্বী দেশের থেকে পিছিয়ে রয়েছি। এর মূল কারণ  ডুয়িং বিজনেসে আমরা পিছিয়ে রয়েছি। তাই এখানে বিনিয়োগ হচ্ছে না। এতে আমাদের অর্থনৈতিক সম্ভাবনা ব্যাহত হচ্ছে।

এ বিষয়ে তিনি বাণিজ্যমন্ত্রণালয় থেকে উচ্চ ক্ষমতার মনিটরিং সেল গঠন করার আহ্বান জানান।

সারাবাংলা/জিএস/এনএস/জেএএম

তথ্য প্রযুক্তি অাইন বুঝে শুনেই করেছি: বাণিজ্যমন্ত্রী
তথ্য প্রযুক্তি অাইন বুঝে শুনেই করেছি: বাণিজ্যমন্ত্রী