শুক্রবার ২৭ এপ্রিল, ২০১৮ , ১৪ বৈশাখ, ১৪২৫, ৯ শাবান, ১৪৩৯

তাও কন্যাদের জন্য সুন্দর পৃথিবী রেখে যেতে যান জাকারবার্গ

জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ | ১:৪১ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কন্যাদের জন্য একটি সুন্দর পৃথিবী রেখে যেতে চান জাকারবার্গ, এর জন্য আর্থিক ক্ষতি মেনে নিতেও কোনো সমস্যা নেই তার।

সম্প্রতি ফেসবুকে নিজের ওয়ালে একটি পোস্ট দেন ফেসবুকের এই প্রতিষ্ঠাতা। তিনি জানান, এখন থেকে বিজ্ঞাপন, ব্র্যান্ড, ব্যবসায়িক এবং সংবাদের মতো  বিষয়গুলো ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত দেওয়ালে কম দেখানো হবে। বিপরীতে পরিবার ও বন্ধুদের দেওয়া পোস্টই অগ্রাধিকার পাবে।

জাকারবার্গ বলেছেন, ‘মানুষের মধ্যকার ইতিবাচক শক্তিকে জাগিয়ে তুলতে চায় ফেসবুক। বিশ্বকে দেখাতে চায়, মানুষের কল্যাণে জন্য চেষ্টা করছে তারা।’

অবশ্য এ ঘোষণা দেওয়ার পরপরই শেয়ার বাজারে দরপতন হয়েছে ফেসবুকের। প্রতিষ্ঠানটির ক্ষতি হয়েছে প্রায় ২৭ হাজার কোটি টাকা।

তবে এর প্রতিক্রিয়ায় আবেগঘন প্রতিাউত্তর দিয়েছেন জাকারবার্গ। তিনি বলেছেন, ‘আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও এ প্রক্রিয়া চলবে। যেন আমার দুই মেয়ে ম্যাক্সিমা ও আগস্ট বড় হলে এটা বুঝতে পারে তাদের বাবা বিশ্বের জন্য ভালো কিছু করেছে। আর এ বিষয়টি আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

‘ফেসবুক বরাবরই ব্যক্তিগত যোগাযোগের স্থান। ফেসবুকে কাটানো সময় শুধু মজাই হবে না বরং হয়ে উঠবে অর্থবহ। এ কারণে এ পরিবর্তন করা হচ্ছে।’ বলেন ফেসবুকের সহ প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মার্ক জাকারবার্গ।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা কমিউনিটির গ্রাহকদের প্রতিক্রিয়া জেনেছি। তারা বলেছেন- ব্যবসা, ব্র্যান্ড ও মিডিয়ার পোস্টগুলি ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলি নষ্ট করছে। বিশ্বের শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়কে সাথে নিয়ে গবেষণা করা হয়েছে। পাবলিক কনটেন্টের কারণে এখন ফেসবুকের বেশির ভাগ গ্রাহক বিরক্ত।’

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, এ ঘোষণার পরে ফেসবুকের আয় আরও কমে যাবে।

তবে বাজার বিশ্লেষক মার্ক মহানি ফোর্বসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন, এ সিদ্ধান্তে ফেসবুক সাময়িক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে সত্য তবে দীর্ঘ মেয়াদে এটি খুবই ইতিবাচক একটি সিদ্ধান্ত।

সারাবাংলা/এসআরপি/এমএ

আরও পড়ুন