শুক্রবার ২০ জুলাই, ২০১৮, ৫ শ্রাবণ, ১৪২৫, ৫ জিলক্বদ, ১৪৩৯

‘দলের জন্য খেলতে গিয়েই জায়গা হারিয়েছে সৌম্য-তাসকিন’

জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ | ৬:৪৫ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

অধিনায়কের কাজ শুধু মাঠে নেতৃত্ব দেওয়া নয়, তার চেয়েও বেশি কিছু। মাশরাফি বিন মুর্তজা তো দলের মাথার ওপর ছায়া হয়ে থাকা একজন বটবৃক্ষও। বাদ পড়ার পরও যার ছায়ার নিচে আশ্রয় নিতে পারেন খেলোয়াড়েরা। সৌম্য সরকার ও তাসকিন আহমেদ আজ মাশরাফির কাছ থেকে সেই নির্ভরতাই পেলেন। খারাপ সময়ে বাদ পড়েছেন, কিন্তু দুজনেই দলের জন্য খেলেছেন, অধিনায়কের কাছ থেকে এমন কথা তো বড় একটা আশার বাণীই।

কাছাকাছি সময়ে দুজনের অভিষেক, বাদ পড়ায়ও তাসকিন-সৌম্য এক সুতোয় গাঁথা। ওয়ানডে থেকে দুজন এই প্রথম স্কোয়াড থেকে একসঙ্গে বাদ পড়লেন (চোট বাদ দিলে)। সৌম্য অবশ্য গত বছর টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন। তবে মাশরাফি তাকে নিয়ে যা বললেন, সেটা সৌম্যকে আরও ভালো করার প্রেরণাই দেবে।

‘সৌম্য এবং তাসকিনের জন্য কিছুটা হলেও খারাপ লাগছে। তারা দলের জন্য খেলতে গিয়ে পারফর্ম করতে পারেনি বলে তারা আজ দলের বাইরে। অধিনায়ক হিসেবে সৌম্যকে আমি স্যালুট দেব যে, সে কখনো স্বার্থপর ছিল না। কঠিন সময়ে সে দলের জন্য খেলেছে। প্রথম দশ ওভারে কিভাবে খেলতে হবে সেটা সে মানিয়ে নিয়েছিল। এরকম কঠিন পরিস্থিতিতে অনেক সময় অনেকে চিন্তা করে যে আমি আমার খেলাটা কিছুক্ষণ খেলি। সৌম্য কিন্তু এই টাইপের ছিল না। সে কিন্তু টিমের জন্য খেলতে গিয়ে পারফর্ম করতে পারেনি। এ কারণে বাইরে।’

তাসকিনও বেশ কিছুদিন ধরেই নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন। মাশরাফি আশার বাণী শোনালেন তাকেও, ‘তাসকিনের উপর দিয়ে কঠিন সময় গিয়েছে। আমাদের অন্য ফাস্ট বোলারদেরও যায়। আমাদের কোচিং স্টাফের সাথে ওদের কথা হয়েছে। বিশেষ করে সুজন ভাই কথা বলেছে দল থেকে বাদ পড়ার পর। ওরা ফাস্ট ক্লাস ক্রিকেট খেলছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেখানে পারফর্ম করে আবার দলের সাথে আসতে পারে। তাদেরকে ১০০ ভাগ ব্যাক করতে হবে। আমি তাদের পাশেই আছি।’

সারাবাংলা/এএম

‘দলের জন্য খেলতে গিয়েই জায়গা হারিয়েছে সৌম্য-তাসকিন’
‘দলের জন্য খেলতে গিয়েই জায়গা হারিয়েছে সৌম্য-তাসকিন’