মঙ্গলবার ২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং , ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

নির্বাচনী প্রচারণাতেও রোগী দেখছেন মেয়র প্রার্থী মনিষা

জুলাই ১৯, ২০১৮ | ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ

।। ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট।।

বরিশাল: মনীষা চক্রবর্তী। শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে সোচ্চার তিনি। বরিশালের প্রান্তিক মানুষের সমস্যা নিয়ে রাজপথে কয়েক বছর ধরেই সক্রিয়। তাই শ্রমিকদের মধ্যে জনপ্রিয় তিনি। ৩৪তম বিসিএসে স্বাস্থ্য ক্যাডারে নিয়োগ পেলেও সরকারি চাকরিতে যোগ না দিয়ে মানুষের অধিকার আদায়ের রাজনীতিকেই বেছে নিয়েছেন তিনি।

বরিশালে আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হওয়ার পেছনেও মনীষার লক্ষ্য ওই একটাই- অবহেলিত মানুষের অধিকার আদায়। মানুষের জন্য কাজ করার এই মানসিকতা তিনি ধরে রেখেছেন নিজের নির্বাচনী প্রচারণাতেও।

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মানুষের সেবার জন্য ‘মই’ প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে লড়ছেন বাসদের ডা. মনিষা চক্রবর্তী। তবে নির্বাচনী প্রচারেও চিকিৎসা সেবা থেমে নেই। নির্বাচনী প্রচারকালে শত শত রোগী তার কাছে ছুটে আসছেন, মনিষাও হাসি মুখে সেবা দিচ্ছেন তাদের। কাউকেই ফেরাচ্ছেন না তিনি। নির্বাচনী প্রচারণার পাশাপাশিই চলছে তার চিকিৎসাসেবা।

নির্বাচনী প্রচারণার সময় এভাবে চিকিৎসাসেবা চালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় চমকিত বরিশাল সিটির বাসিন্দারা। মনিষা চক্রবর্তীর এমন মানসিকতাকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন নগরবাসী। ভোটের অঙ্কা যাই হোক না কেন, স্থানীয় রাজনীতিবিদরাও মনিষার এমন মানসিকতায় মুগ্ধ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বরিশালের একজন রাজনীতিবিদ বলেন, মনিষা চক্রবর্তী মেয়র হোক আর নাই হোক, তিনি যে সত্যিকারের সেবক ও রাজনীতিবিদ- আবারও তার প্রমাণ দিলেন। আসলে আমাদের সমাজে ভালো মানুষ ও মেধাবীদের অনেকেই এখন আর রাজনীতিতে আসতে চাইছেন না। এমনকি তাদের রাজনীতি করার জায়গাও কম। এখন চলে ক্ষমতা আর ভাইয়ের রাজনীতি। সমাজে সত্যিকারের রাজনৈতিক নেতা ও ভালো মানুষের বড়ই অভাব। এরপরও মনিষার মতো মানুষ রাজনীতিতে এসে অন্তত মানুষের হৃদয়ে নাড়া দিতে পেরেছে। এটাই মনিষার বড় বিজয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মেয়র প্রার্থী ডা. মনিষার বক্তব্য, মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সাধারণ মানুষের সাথে তিনি রাজপথে থেকেছেন। জনসেবার ব্রত নিয়েই তিনি রাজনীতি করছেন এবং মেয়র প্রার্থীও হয়েছেন। রাজনীতিবিদের এই পরিচয়ের বাইরেও তিনি একজন চিকিৎসক। আর জনগণের চিকিৎসা দেওয়ার মাধ্যমেও মূলত তিনি তাদের সেবাই করছেন।

মনিষা বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা করতে গিয়ে যদি কোনো অসুস্থ্য মানুষের সেবা করার সুযোগ পাওয়া যায়, সেটা আমি আনন্দের সাথেই গ্রহণ করি। তাছাড়া রাজনীতিবিদ হলেও আমি একজন চিকিৎসক। তাই মানুষকে সেবা দেওয়াটাও আমার কর্তব্য। আমি সেই কর্তব্যই পালন করছি। চিকিৎসক অথবা রাজনীতিবিদ- যেকোনো ভূমিকাতে মানুষের সেবাই করে যেতে চাই, বলেন মনিষা।

সারাবাংলা/এমএইচ

নির্বাচনী প্রচারণাতেও রোগী দেখছেন মেয়র প্রার্থী মনিষা
নির্বাচনী প্রচারণাতেও রোগী দেখছেন মেয়র প্রার্থী মনিষা
নির্বাচনী প্রচারণাতেও রোগী দেখছেন মেয়র প্রার্থী মনিষা