শনিবার ২৬ মে, ২০১৮ , ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫, ১০ রমযান, ১৪৩৯

নেশা থেকে বাঁচাতে সন্তানকে নিয়ে আদালতে বাবা

ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ | ৫:০০ অপরাহ্ণ

আরিফুল ইসলাম,স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নেশার অভিশাপ থেকে সন্তানকে বাঁচাতে আদালতে এসেছেন এক বাবা। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি)  ঢাকা মহানগর হাকিম মাহমুদা আক্তারের আদালতে ছেলেকে নিয়ে আসেন বাবা মিলটন মিয়া।

কুমিল্লার লাঙ্গলকোর্টের বাসিন্দা মিলটন মিয়া (৪৭)  জানান, তার দুই মেয়ে, এক ছেলে। একমাত্র ছেলেটির বয়স ১২ বছর অথচ সে পুরোপুরি নেশায় আসক্ত।

তিনি জানান,পরিবার নিয়ে রাজধানীর তুরাগ থানার পাকুরিয়া এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থেকে ফুটপাতে ব্যবসা করেন। দুই মেয়ে পড়ালেখা করলেও ছেলে স্কুল ছেড়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। সে এই বয়সে সিগারেট, গাঁজা ও ফেনসিডিলসহ সব ধরনের নেশা করে। নেশার টাকা জোগাড় করতে সে বাসার জিনিসপত্র বিক্রি করে দেয় এবং টাকা পয়সা চুরি করে। কোনোভাবেই তাকে নেশামুক্ত করা সম্ভব হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে কিছুদিন আগে ছেলেকে নিয়ে  টঙ্গীর কিশোর সংশোধনী কেন্দ্রে রাখতে যান। কিন্তু তারা বলেছে আদালতে নির্দেশ ছাড়া সেখানে কাউকে রাখতে পারবেন না।

এই কারণে মঙ্গলবার তিনি আদালতে ছেলেকে  এনেছেন। যদিও আদালত এদিন কিশোর সংশোধনী কেন্দ্রে পাঠানোর আদেশ দিলেন না। আদালত বলেছেন আরও এক সপ্তাহ দেখতে। এরপর ভালো না হলে তাকে নিয়ে আসতে বলেছেন।

এ মামলার আইনজীবী মো. মনির হোসেন রিপন বলেন, নেশার টাকা জোগাতে চুরি, মারধরের অভিযোগে এই কিশোরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।  ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে নেশামুক্ত না হওয়া পর্যন্ত কিশোর সংশোধনী কেন্দ্রে পাঠানোর আবেদন করা হয়েছে। কিশোরের বাবার পক্ষে এ মামলা করা হয়।

এ বিষয়ে আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান বলেন, শুনানির সময় আমরা শিশুটিকে বুঝিয়েছি। বিচারক নিজেও বুঝিয়ে বলেছেন। বিচারক এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিন শিশুটিকে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। এরপরও যদি ঠিক না হয় এরপর আদালতে নিয়ে আসতে বলেছেন।

সারাবাংলা/এআই/জেডএফ

 

 

 

আরও পড়ুন