বুধবার ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

নয়াপল্টনের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে মামলা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নভেম্বর ১৪, ২০১৮ | ১০:০১ অপরাহ্ণ

।। স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে দোষীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ভিডিও ফুটেজগুলো দেখা হচ্ছে। যারা এ ঘটনায় জড়িত, তাদের নামে তো মামলা হবেই। যারা গাড়ি পুড়িয়েছেন, পুলিশের গায়ে আঘাত করেছেন, পুলিশকে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠিচার্জ করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবেই। দোষীদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনি ব্যবস্থা নেবো।

বুধবার (১৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজারবাগ পুলিশ লাইন হাসপাতালে ওই সংঘর্ষে আহত পুলিশ সদস্যদেরকে দেখতে এসে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

বুধবার দুপুরে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের শোডাউনের সময় নেতাকর্মীদের ভিড়ে আশপাশের এলাকায় যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেলে পুলিশ তাদের রাস্তা থেকে সরে যেতে বলে। তারা রাস্তা না ছাড়লে পুলিশ বিএনপি নেতাকর্মীদের জোর করে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি শুরু হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ এসময় ফাঁকা গুলি ছুঁড়লে বিএনপির নেতাকর্মীরাও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশের গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটে। এ সংঘর্ষে পুলিশ ও আনসার মিলিয়ে ১৩ সদস্য আহত হন। এছাড়া পুলিশের দু’টি গাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয় ও একটি গাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

পরে আহত পুলিশ সদস্যদের নেওয়া হয় রাজারবাগ হাসপাতালে। সন্ধ্যায় সেখানে আহতদের দেখতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আহতরা বেশিরভাগই ইটপাটকেল ও লাঠির আঘাত পেয়েছেন। একজনকে চতুর্দিক থেকে ঘিরে আটকে রাখা হয়েছিল। পরে অন্য পুলিশ ফোর্স এসে তাকে উদ্ধার করে। এদের বেশিরভাগককেই মাথা, হাঁটু ও পায়ে বেধড়ক পিঠিয়েছে। কেউ কেউ পেটে আঘাত পেয়েছে। তারা গুরুতর আঘাত না পেলেও বেশি আঘাত পেলে কারও কারও প্রাণহানিও ঘটতে পারত।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তাদের উদ্দেশ্যে ছিল প্রাণহানি ঘটিয়ে একটা আশঙ্কাজনক পরিস্থিতি তৈরি করে নির্বাচনকে বানচাল করা। আহতদের কথা শুনে তাই মনে হলো। এভাবে আক্রমণ করার কোনো মানে হয় না। সারাদেশের মানুষ একটি উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনটির অপেক্ষা করছিল। যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন, তারা মনের আনন্দে ফরম জমা দিচ্ছিলেন। এমন একটি সময়ে যারা নির্বাচন চায়, তারা এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে না। এটা নিশ্চয় উসকানি, নিশ্চয় ষড়যন্ত্র। নিশ্চয় নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি তৈরির জন্যই এ ঘটনাগুলো ঘটিয়েছে।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) জাবেদ পাটোয়ারী, ডিএমপি পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মীর রেজাউল আলমসহ অন্যরা।

আরও পড়ুন-

‘নির্বাচন বানচালের চেষ্টা বিএনপির, দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

সারাবাংলা/এসএইচ/টিআর

নয়াপল্টনের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে মামলা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নয়াপল্টনের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে মামলা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নয়াপল্টনের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে মামলা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী