বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪ আশ্বিন, ১৪২৫, ৮ মুহররম, ১৪৪০

অর্থ পাচার: ফালুর দুই ভাতিজাকে ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ

সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | ৭:৫০ অপরাহ্ণ

।। সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: বিএনপি নেতা মোসাদ্দেক আলী ফালুর অবৈধ সম্পত্তি তার দুই ভাতিজার নামে ‘হস্তান্তর চেষ্টায়’ অধিকতর তদন্ত করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বিদেশে অর্থ পাচারের ঘটনায় ফালুর যে সম্পত্তির কথা উল্লেখ রয়েছে তার বাইরে বৈধ কোনো সম্পত্তি হস্তান্তর হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে দুদক।

এদিকে, বিদেশে অর্থ পাচারের অভিযোগে ফালুর ওই দুই ভাতিজাকে ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

ফালুর দুই ভাতিজা হলেন- রোজা প্রোপার্টিজ লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাঈম উদ্দিন আহম্মেদ এবং একই প্রতিষ্ঠানের পরিচালক আশফাক উদ্দিন। অর্থ পাচারের ঘটনায় বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে সারাবাংলাকে জানিয়েছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

তবে, ফালুর সম্পদ তাদের নামে লিখে দেওয়ার চেষ্টার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে কিনা তা জানাতে পারেননি দুদকের এই কর্মকর্তা।

দুদক সূত্র গতকাল মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) সারাবাংলাকে জানায়, ফালু তার সম্পত্তি ভাতিজাদের নামে অবৈধ উপায়ে হস্তান্তরের চেষ্টা করে। বিষয়টি দুদক অবহিত হয়। দুদকের গোয়েন্দারা ওই তথ্য এবং কাজগপত্র হাতে পেয়েছে। যেখানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কিছু কর্মকর্তার যোগসাজশ রয়েছে। এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে দুদক ব্যাখ্যা চেয়েছে। আর ওইসব কর্মকর্তাকে দুদকে তলব করা হতে পারে বলেও জানিয়েছে ওই সূত্র।

তবে ফালুর দুই ভাতিজাকে বুধবার তলব করা হয়েছিল দুবাইয়ে অর্থ পাচারের ঘটনায়। দুদকের সহকারী পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। ফালুর ভাতিজা নাঈম উদ্দিন আহমেদের বিদেশ ভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দুদক। নাঈম দেশের বাইরে চলে যাওয়ার চেষ্টা করছেন এমন তথ্য পাওয়ার পর দুদক এ পদক্ষেপ নেয়। অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে ফালুসহ ৯ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ৮ বিলিয়ন ডলার অর্থ পাচারের অভিযোগ রয়েছে।

এ ঘটনায় দুই দফা তলব করা হলেও দুদকে হাজির হননি ফালু। তদন্তে অসহযোগিতার কারণে ফালুসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও জানিয়েছে দুদক। অন্য যে দুইজনের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা রয়েছে তারা হলেন আরএকে পেইন্টেস লিমিটেডের পরিচালক শায়লিন জামান আকবর ও স্টার সিরামিকস লিমিটেডের পরিচালক প্রতিমা সরকার।

সারাবাংলা/ইএইচটি/এমও

অর্থ পাচার: ফালুর দুই ভাতিজাকে ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ
অর্থ পাচার: ফালুর দুই ভাতিজাকে ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ