সোমবার ১৮ জুন, ২০১৮, ৪ আষাঢ়, ১৪২৫, ২ শাওয়াল, ১৪৩৯

ফুরফুরে ফ্যাশনে ঢোলা পাজামা

ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৮ | ১১:১১ পূর্বাহ্ণ

রাজনীন ফারজানা।।

সময়ের সাথে সাথে বদলে যায় আমাদের পোশাকের রুচি আর সেই সাথে বদলায় পোশাকের ধরণ ও সাজগোজের ধারা। বেশ কয়েকবছর ধরে লেগিংসের পাশাপাশি আমাদের দেশের নারীদের পোশাকে ঢোলা পাজামার চল লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মূলত গরম আবহাওয়ার কারণে আজকাল কিশোরী কিংবা তরুণীরা নানা কাটের আর ধরণের ঢোলা পাজামা পরছে।

পশ্চিমা বিশ্বে পাজামাকে আরামদায়ক ঘরোয়া পোশাক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাই হয়ত বিশেষত মেয়েরা একে রাতে ঘুমানোর পোশাক হিসেবে ব্যবহার করে। ভারতীয় উপমহাদেশে পাজামা নারী পুরুষ উভয়েই পরে থাকলেও পাজামা বলতে যেন নারীদের পোশাকই বোঝায়। আমাদের দেশেও দেখা যায় পুরুষরা সাধারণত পাঞ্জাবীর সাথে ঢোলা পাজামা পরে। আর নানা বয়সী নারীরা নিয়মিত পোশাক হিসেবে পাজামা পরে। আর পাজামার সাথে বেছে নেয় কামিজ, কুর্তি, ফতুয়া, টপস বা গেঞ্জি।

 

 

নানাধরনের ঢোলা পাজামা আছে। যেমন পাটিয়ালা, ধুতি, পালাজো, হেরেম প্যান্ট ইত্যাদি। বেশ কয়েক বছর ধরে পালাজো প্যান্টের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে থাকলেও ইদানীং ঢোলা প্যান্ট বা পাজামার ফ্যাশনে হেরেম প্যান্টও বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। আরামের পাশাপাশি এসব প্যান্ট বা পাজামার ভিন্নধর্মী কাট, রঙের ও প্রিন্টের বৈচিত্র্য বর্তমানে ফ্যাশনপ্রেমীদের দৃষ্টি আকর্ষন করতে সক্ষম হয়েছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেল ফ্যাশন হাউজ যাত্রা, আড়ং ছাড়াও নিউ মার্কেট, ঢাকা কলেজের বিপরীতের বদরুদ্দোজা সুপার মার্কেটে নানা ধরণের ঢোলা পাজামা পাওয়া যাচ্ছে। যাত্রায় গিয়ে দেখা গেল সেখানে রয়েছে নানা রঙ আর ঢঙের আরামদায়ক ঢোলা পাজামার সমাহার। আরামের কথা মাথায় রেখে এসব পাজামার ফেব্রিক হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে খাদি, সুতি তাঁত ইত্যাদি। আর তাদের ঢোলা পাজামার সংগ্রহে নতুন সংযোজন ট্রাইবাল থিমের ডিজাইন ও ট্রাইবাল কাপড়ের ব্যবহার। এক রঙা, টাই ডাই, বাটিক, প্রিন্ট, ট্রাইবাল নানা ধরণের হেরেম প্যান্ট, পালাজো প্যান্ট, ধুতি ইত্যাদি পাওয়া যাচ্ছে যাত্রায়। চাইলে পাজামার সাথে মিলিয়ে টপস বা কামিজও বেছে নিতে পারবেন এখান থেকে। বড়দের পাজামার দাম পড়বে ফেব্রিক ও ডিজাইন ভেদে পনেরোশ টাকা থেকে শুরু করে তিন হাজার টাকার মধ্যে। আর বাচ্চাদের জন্য পাবেন সাতশ টাকা থেকে শুরু করে তেরোশ টাকার মধ্যে।

 

 

ফ্যাশন হাউজ আড়ংয়ে মূলত ম্যাটারনিটি বা মাতৃত্ব কালেকশনে পাবেন ঢোলা পালাজো বা হেরেম প্যান্ট। ম্যাটারনিটি কালেকশন ছাড়াও তরুণীদের ও মেয়ে বাচ্চাদের জন্যও এখানে এ ধরণের পাজামা পাওয়া যাবে। কাপড় হিসেবে তারা বেছে নিয়েছে লিনেন, সুতি, ক্যাশমেলন, মিক্সড সুতি বা গ্যাবারডিন। বড়দের জন্য কিনতে চাইলে পাবেন পাঁচশ টাকা থেকে এক হাজার টাকার মধ্যে আর বাচ্চাদের সংগ্রহ পাওয়া যাবে চারশ থেকে ছয়শ টাকার মধ্যে।

এছাড়াও নিউ মার্কেট ও বদরুদ্দোজা সুপার মার্কেটে চারশ থেকে পাঁচশ টাকার মধ্যে পাবেন সুতি, সিল্ক বা লিনেনের এ ধরণের পাজামা।

 

 

ফ্যাশন হাউজ যাত্রায় হেরেম প্যান্ট কিনতে আসা নাসরিন জানালেন তিনি এ ধরণের প্যান্ট খুবই পছন্দ করেন কারণ এতে একটা ননফরমাল আর জিপসি লুক আসে তাই। একইসাথে এ ধরণের পোশাকে দেখতে ট্রেন্ডি আর স্মার্ট লাগে। তবে মূলত গরমে আরামের কথা মাথায় রেখেই তিনি এ ধরণের পোশাক পরেন। ঢোলা পাজামার সাথে তিনি যে সবসময়ই ম্যাচিং টপস পরেন তা না। হাতাকাটা ফতুয়া, টি-শার্ট, শার্ট বা শর্ট কামিজ পরেন এগুলোর সাথে।

যদিও ঢোলা পাজামা সামার বা গরমের জন্য আদর্শ; আবার ক্যাজুয়াল পোশাক, ইয়োগা বা ড্যান্স সেশনের জন্যও এগুলো বেশ মানিয়ে যায়। এ ধরণের ঢোলা পাজামা ভীষণই আরামদায়ক তাই আসন্ন গরমে বন্ধুদের সাথে আউটিং, ক্লাস, অফিস, খেতে যাওয়া বা শপিং যেখানেই যান না কেন সহজেই বেছে নিতে পারেন পালাজো, ধুতি বা হেরেম প্যান্ট।

 

ছবি- ইন্টারনেট

 

সারাবাংলা/আরএফ/এসএস

Tags: ,

ফুরফুরে ফ্যাশনে ঢোলা পাজামা
ফুরফুরে ফ্যাশনে ঢোলা পাজামা