রবিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং , ১২ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ফের সরকারি অচলাবস্থার ঝুঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ | ৪:২৬ অপরাহ্ণ

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

ফের সরকারি অচলাবস্থার (গভর্নমেন্ট শাটডাউন) ঝুঁকিতে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি শেষ হতে যাচ্ছে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যকার করা সাময়িক চুক্তির মেয়াদ। এর মধ্যে নতুন চুক্তি না হলে আবারো শুরু হবে অচলাবস্থা। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুই পক্ষের মধ্যে এ বিষয়ক একটি চুক্তি আলোচনা স্থগিত হয়েছে। খবর বিবিসির।

সোমবার অচলাবস্থা ঠেকাতে মার্কিন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে সীমান্ত নিরাপত্তা চুক্তি নিয়ে একটি আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। তবে দুই পক্ষ কোন সমঝোতায় পৌঁছাতে না পারায় আলোচনাটি স্থগিত করা হয়েছে। এতে বেড়েছে দ্বিতীয় দফা সরকারি অচলাবস্থার ঝুঁকি।

আইনপ্রণেতারা সোমবার সমঝোতার প্রত্যাশা করছিলেন। এমনটা হলে, শুক্রবারের (১৫ ফেব্রুয়ারি) মধ্যে নতুন আইন পাসের সময় পেত কংগ্রেস।

দুই পক্ষের মধ্যে কিছু বিষয়ে দ্বিমত রয়েছে। এসব বিষয়ের মধ্যে রয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রস্তাবিত সীমান্ত দেয়াল নির্মাণের অর্থায়ন ও আটক করা যাবে এমন কাগজপত্রহীন অভিবাসন প্রত্যাশীর সংখ্যা সীমিতকরণ।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে শুরু হওয়া গত অচলাবস্থা ৩৫ দিন স্থায়ী হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘতম অচলাবস্থার ঘটনা এটি।
অচলাবস্থার শিকার হয়ে ৩৫ দিন বেতনহীন ছিলেন প্রায় লাখ লাখ সরকারি কর্মচারী। সাময়িকভাবে অর্থায়ন বন্ধ ছিল স্বাস্থ্যসেবা সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ খাতে। মার্কিন অর্থনীতি প্রায় ১ হাজার ১০০ কোটি ডলার ক্ষতির শিকার হয়েছে।

গত ২৫ জানুয়ারি তিন সপ্তাহের জন্য অচলাবস্থা স্থগিত রাখতে ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ট্রাম্প। শুক্রবার ওই চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে যাচ্ছে।

এদিকে, সোমবারের আলোচনা স্থগিত হওয়ার পর নতুন করে আলোচনার কোন সময় নির্ধারণ করা হয়নি।

উল্লেখ্য, পুনরায় অচলাবস্থা শুরু হলে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কৃষি ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ মোট ১০টি মন্ত্রণালয়ে অর্থায়ন বন্ধ থাকবে। ফলস্বরূপ এই মন্ত্রণালয়গুলোর আওতাধীন সকল সেবাও বন্ধ থাকবে। এছাড়া পুনরায় বেতনহীন কাজ করবে প্রায় ৮ লাখ মার্কিন কর্মচারী। বন্ধ থাকবে সীমান্ত নিরাপত্তা, চিকিৎসাসেবা সহ বহু গুরুত্বপূর্ণ সরকারি সেবা।

সারাবাংলা/ আরএ

ফের সরকারি অচলাবস্থার ঝুঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন