শুক্রবার ২০ এপ্রিল, ২০১৮ , ৭ বৈশাখ, ১৪২৫, ২ শাবান, ১৪৩৯

ফোর্ট উইলিয়ামে আবেগ তাড়িত বাংলাদেশি মুক্তিযোদ্ধারা

ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭ | ৭:১০ অপরাহ্ণ

শুভজিৎ পুততুণ্ড, কলকাতা থেকে

বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি দলের উপস্থিতিতে ১৬ ডিসেম্বর কলকাতায় ভারতীয় সেনা বাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় সদর দফতর ফোর্ট উইলিয়াম-এ উদযাপিত হল মহান বিজয় দিবস।

শনিবার সকালে ফোর্ট উইলিয়ামের মূল ফটকের সামনে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে ফুলেল শ্রদ্ধা জানায় বাংলাদেশ থেকে আগত মুক্তিযোদ্ধার একটি প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন বাংলাদেশের গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশারফ হোসেন এমপি। প্রতিনিধি দলে ছিলেন গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীকসহ অন্য যুদ্ধজয়ী বীরেরাও।

ভারতের পক্ষে শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভারতের তিন সেনাবাহিনীর (স্থল, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী) পূর্বাঞ্চলীয় শাখার প্রধান। এছাড়াও বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানান দেশটির সাবেক সেনা কর্মকর্তারা।

এর পর সেনাবাহিনীর মাঠে আয়োজিত একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ সম্বলিত একটি প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি দলটি।

সেদিনকার সেই স্মৃতি বিজরিত দৃশ্য দেখে দলের অনেকেই আবেগ তাড়িত হয়ে পড়েন।

অনুষ্ঠানের ফাঁকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মহান বিজয় দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন মোশারফ হোসেন এমপি। একইসঙ্গে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকারের অবদানের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, যেভাবে ভারত সরকার কয়েক লাখ মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে, খাদ্য দিয়েছে, প্রশিক্ষণ দিয়েছে তা কখনওই অস্বীকার করা উপায় নেই। না হলে এত তাড়াতাড়ি এই স্বাধীনতা আসতো না’।

তবে স্বাধীনতার এত বছর পরেও স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিগুলি সম্পর্কে বলতে গিয়ে মোশারফ হোসেন বলেন ‘জামাত শিবির, পাকিস্তানি দোশর এখনও দেশে বিরাজ করছে ঠিকই তবে তা ধীরে ধীরে কমে আসছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে বিরোধীদের আর কিছু বলার নেই বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে ছিলেন লে. জেনারেল (অব) মোল্লা ফজলে আকবর, সংসদ সদস্য আবদুস শহীদ ও সংসদ সদস্য ওয়াসেক আয়শা খান।

সারাবাংলা/এমএম

আরও পড়ুন