বৃহস্পতিবার ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বাজার তদারকি: ৯৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা

ডিসেম্বর ৪, ২০১৮ | ১০:৫১ অপরাহ্ণ

।। স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের প্রধান কার্যালয় এবং বিভিন্ন বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়ের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন জেলার বাজার তদারকি করা হয়েছে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরি, ওজনে কারচুপি, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ও ওষুধ বিক্রি, বেশি দামে পণ্য বিক্রি— এমন বিভিন্ন অভিযোগে বাজার তদারকির সময় ৯৮টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৬ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

রাজধানীর বাইরে যেসব এলাকায় অভিযান চালানো হয়, সেগুলো হলো— রাজশাহী, বাগেরহাট, ফেনী, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, মুন্সীগঞ্জ, ময়মনসিংহ, ভোলা, কুমিল্লা, খুলনা, নেত্রকোনা, বান্দরবান, ফরিদপুর, ঝালকাঠি, বরিশাল, সিলেট, গাইবান্ধা, টাঙ্গাইল, বগুড়া, হবিগঞ্জ, নোয়াখালী, শরীয়তপুর, শেরপুর, কিশোরগঞ্জ, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, পটুয়াখালী, কুষ্টিয়া ও মৌলভীবাজার।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মোবাইল দলের সঙ্গে প্রধান কার্যালয়ের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগরীর শাহজাহানপুর এলাকায় পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে মজিবর ফ্রুটকে এক হাজার টাকা ও সিরাজ ফ্রুট স্টোরকে এক হাজার টাকাসহ মোট দুই হাজার টাকা এবং ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগরীর ধানমন্ডি ও মোহাম্মদপুর এলাকায় বাজার তদারকি পরিচালনা করা হয়।

বাজার তদারকির সময় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যপণ্য তৈরির অপরাধে পিজ্জা স্কয়ারকে ৮০ হাজার টাকা ও স্কাই রেস্টুরেন্টকে ২৫ হাজার টাকা, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে চাঁদপুর এন্টারপ্রাইজকে ১০ হাজার টাকা, তুহিন সুপার স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, মজিবর স্টোরকে ১০ হাজার টাকা ও হক ব্রেড অ্যান্ড ফুড প্লাজাকে ২০ হাজার টাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বা ওষুধ বিক্রির অপরাধে জনতা ফার্মেসিকে ২০ হাজার টাকা ও আমেরিকান বার্গার ক্যাফেকে ২০ হাজার টাকা এবং ওজনে কারচুপির অপরাধে আল্লাহর দান মিষ্টির দোকানকে আট হাজার টাকাসহ মোট ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

এছাড়া দেশব্যাপী ৩২টি জেলায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যপণ্য তৈরি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বা ওষুধ বিক্রি, খাদ্যপণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্যের মিশ্রণ, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করা, ভেজাল পণ্য বা ওষুধ বিক্রি, ওজন পরিমাপক যন্ত্রের কারচুপি, নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্যে পণ্য বিক্রি, সেবাগ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্নকারী কাজ ও পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ৮৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪শ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

অন্যদিকে, লিখিত অভিযোগ নিষ্পত্তির মাধ্যমে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্যে পণ্য বিক্রি ও পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে দু’টি প্রতিষ্ঠানকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় এবং দু’জন অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসেবে পাঁচ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান ও জেলা পুলিশ, সিভিল সার্জন, মৎস্য কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদফতরের প্রতিনিধি, বাজার কর্মকর্তা, স্যানিটারি পরিদর্শক, শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিনিধি এবং ক্যাব এসব তদারকি কাজে সহায়তা দেয়।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর

বাজার তদারকি: ৯৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা
বাজার তদারকি: ৯৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা
বাজার তদারকি: ৯৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা