বুধবার ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিএনপি প্রমাণ করুক নিরপরাধ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে

নভেম্বর ১৯, ২০১৮ | ১০:২৭ অপরাহ্ণ

।। সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: বিএনপির উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি চ্যালেঞ্জ করছি বিএনপি মহাসচিবকে, কোনও নিরপরাধ ব্যক্তি এখানে ভিকটিম হবে না। যাদের যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বা হচ্ছে, আইনের দৃষ্টিতে এরা কে কে নিরপরাধ এটা প্রমাণ করুন।

বিএনপি’র অভিযোগ তাদের সম্ভাব্য প্রার্থীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, নেতা-কর্মীদের আটক করা হচ্ছে। এই সংক্রান্ত একটি তালিকা নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা দিয়েছে বিএনপি। এই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সোমবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

এদিন আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সমসাময়িক রাজনীতি নিয়ে দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন তিনি।

ভিডিও কনফারেন্সে তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন হোক এটা আমরা চাই। আমরা সরকারি দল, আমাদের দায়টা এখানে অনেক বেশি। কিছু কিছু বিষয়ে আমাদের সহনশীল হতে হবে। আমরা এখনও নির্বাচন কমিশনের দিকে তাকিয়ে আছি। লন্ডনে বসে তারেক সাক্ষাতকার নিচ্ছেন- এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন যথাযথ ব্যবস্থা নেবে এটা আমরা প্রত্যাশা করি। আমরা একটা ন্যায়সঙ্গত বিষয় নিয়ে ইসি’র দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। ইসি যদি সঠিক যথাযথ আইনি ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে আমরা ভোটারদের জানাবো। দেশবাসী দেখবে, আরিপও’র সুস্পষ্ট লঙ্ঘন কি না? আমরা দেশের মানুষের কাছে, জনতার আদালতে বিচার চাইব।

তিনি আরও বলেন, অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি যে ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে একটি দল নির্বাচন বানচালের পাঁয়তারা করছে। তফসিল ঘোষণার পর মনোনয়ন দেওয়ার পর্যায়ে তারা পরিকল্পিতভাবে মনোনয়ন সংগ্রহের নামে, তাদের নেতা-কর্মীদের নামে সারাদেশের সন্ত্রাসীদের জমায়েত করেছে। এরপর পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে, গাড়ি পুড়িয়ে, গাড়ির ওপর ওঠে জগাই-মাধাই নৃত্য প্রদর্শন করেছে। ২০ জনের মতো আহত পুলিশ অনেকে এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এতদিন তারা পরিবেশ পরিবেশ করেছে, এখন তফসিল ঘোষণার পর পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা চালাচ্ছে। নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি চিহ্নিত দাগী সন্ত্রাসীদের ঢাকায় এনে হামলা চালানো হচ্ছে। একদিকে মনোনয়ন পত্র দিচ্ছে, আরেকদিকে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের নামে রাস্তা বন্ধ করছে।

রাস্তা বন্ধ করার উদ্দেশ্য আওয়ামী লীগের চেয়ে বেশি মনোনয়ন পত্র বিক্রি হয়েছে দেখানো- দাবি করে এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, তারা মনোনয়ন পত্র বিক্রির যে হিসাব দিয়েছে, আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি এটা ভুয়া। তাদের মনোনয়ন পত্র কত হবে এটা বাংলাদেশের মানুষ ভালো জানে।

এ সময় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, এনামুল হক শামীম, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, কার্যনির্বাহী সদস্য রেমন্ড আরেং, মারুফা আকতার পপি উপস্থিত ছিলেন।

কাউকে নিশ্চয়তা দেওয়া হয়নি, মনোনয়ন তালিকা মনগড়া: ওবায়দুল কাদের

সারাবাংলা/এনআর/এটি

বিএনপি প্রমাণ করুক নিরপরাধ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে
বিএনপি প্রমাণ করুক নিরপরাধ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে
বিএনপি প্রমাণ করুক নিরপরাধ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে