সোমবার ১৮ জুন, ২০১৮, ৪ আষাঢ়, ১৪২৫, ২ শাওয়াল, ১৪৩৯

বিদেশি বিশেষজ্ঞ নয়, দুর্যোগ প্রতিরোধে চায় রাজনৈতিক সদিচ্ছা

জানুয়ারি ১২, ২০১৮ | ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

অর্থনীতিবিদ ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশের ভূমিধ্বস, বন্যা ও জলাবদ্ধতা মত মনুষের তৈরি দুর্যোগ থেকে মুক্তি পেতে নিজস্ব প্রযুক্তি ব্যবহার করে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা নিতে হবে। বিদেশি বিশেষজ্ঞরা এটা করে দিতে পারবে না। আর এ জন্য প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছার ।

শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া দুই দিনের ‘বন্যা, জলাবদ্ধতা ও ভূমিধ্বস’ শীর্ষক সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তন বিশেষ এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও বাংলাদেশ পরিবেশ নেটওয়ার্ক (বেন)।

ওয়াহিদ উদ্দিন বলেন, বন্যা ও নদী ভাঙনে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় গরীব মানুষেরা। প্রান্তিক এসব মানুষের অবস্থার উন্নয়ন পরিবেশ আন্দোলন আরও জোরদার হওয়া উচিৎ।

তিনি বলেন, প্রকৃতির সঙ্গে যুদ্ধ করা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়। তবে মানুষের তৈরি দুর্যোগ বন্ধে ব্যবস্থা নিতে পারি।

সম্মেলনের প্রথম দিনে কয়েকটি সেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় পরিবেশবাদী ও বিভিন্ন এনজিও সংস্থার প্রতিনিধিরা।

‘চট্টগ্রামের পাহাড় ও রোহিঙ্গা’শীর্ষক পর্বে বক্তারা বলেন, মিয়ানমার রোহিঙ্গা গণহত্যাকে বারবার অস্বীকার করলেও বর্তমানে সে দেশের সেনাবাহিনী ১০ রোহিঙ্গা হত্যার কথা স্বীকার করেছে। এটা অবশ্যই বাংলাদেশের জন্য ইতিবাচক। আমরা আশা করি রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হবেই, হবে।

তবে তারা এও বলেন, ক্যাম্প করার জন্য যে গাছ কাটা হয়েছে তা এখনি ওই এলাকার পরিবেশকে বিপর্যয়ের মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

তারা অভিযোগ করেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আশেপাশে অবাধে গড়ে উঠছে মসজিদ মাদ্রাসা। এসব মসজিদ মাদ্রাসায় ধর্মের বাইরে আর কি কি হয় তা সরকারের নজরে নেই!

অধ্যাপক এম ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে এ বিশেষ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন বাপার সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল মতিন।

দুই দিনের এই সম্মেলনের শেষ হবে আগামীকাল শনিবার (১৩ জানুয়ারি)।

সারাবাংলা/এসআরপি

Tags: , ,

বিদেশি বিশেষজ্ঞ নয়, দুর্যোগ প্রতিরোধে চায় রাজনৈতিক সদিচ্ছা
বিদেশি বিশেষজ্ঞ নয়, দুর্যোগ প্রতিরোধে চায় রাজনৈতিক সদিচ্ছা