শনিবার ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৭ মাঘ, ১৪২৪, ২ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯

Live Score

বিস্কুট কিনতে বাণিজ্য মেলায়!

জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ | ৪:৩৮ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাণিজ্য মেলায় জমজমাট বিস্কুট কোম্পানির প্যাভিলিয়নগুলো। বিভিন্ন কোম্পানির বিস্কুটের সঙ্গে নানা রকম ছাড়ের কারণে ক্রেতাদেরও রয়েছে বিশেষ আগ্রহ।

রোববার বাণিজ্য মেলা ঘুরে দেখা গেছে, মেলায় আসা ক্রেতারা বাড়ির জন্য বড় টিনের বিস্কুট কিনলেও সেখানে দাঁড়িয়ে খাওয়ার জন্য ছোট প্যাকেটের ক্রেতার সংখ্যাও অনেক। ভালো বিক্রিতে সন্তুষ্ট মেলায় আসা বিক্রেতারাও।

মেলায় আসা বেসরকারি চাকরিজীবী তারেক রহমান সারাবাংলাকে বলেন, ঠান্ডার কারণে আমার স্ত্রী আজ ছোট বাচ্চাটাকে নিয়ে আসতে পারেনি। তাই পরিবারের জন্য বিস্কুট নিয়ে যাচ্ছি। ঘরে বিস্কুট থাকলে নিজেরাও খাওয়া যায়। আবার মেহমান আসলেও আপ্যায়ন করা যায়।

মিরপুর সাড়ে ১১ থেকে আসা শাহজাদী বেগম বলেন, নাতি-নাতনিদের জন্য বিস্কুট কিনলাম। বিস্কুট নিজেরও খুব পছন্দের। আগে বিদশি বিস্কুট খেতাম। তবে এখন দেশেই খুব ভালো মানের বিস্কুট তৈরি হচ্ছে।
বাণিজ্য মেলায় অংশ নেওয়া রুমানা বিস্কুটের প্যাভেলিয়নে গিয়ে দেখা যায়, মেলা উপলক্ষ্যে তারা ১৮টা প্যাকেজ নিয়ে এসেছে।

তা ছাড়া লেক্সাস বিস্কুটের প্রতি প্যাকেট মেলায় বিক্রি হচ্ছে ২৪৪ টাকা, বাইরে যার প্রতি প্যাকেটর মূল্য ৩০০ টাকা। ফ্যামিলি প্যাকেজ মেলার বাইরে ৬৯০ টাকা, আর মেলায় বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা। ১৯০ টাকা ছাড় দিয়েছে। মি. বিস্কুট ম্যানিয়া প্যাকেজে মেলার বাইরে ৫০৫ টাকা, মেলায় ছাড় দিয়ে ৪০০ টাকা এবং সঙ্গে একটা ঝুড়ি ফ্রি। রুমানিয়া ফ্যামিলি প্যাকেজে ৪ আইটেমের বিস্কুট আছে। এর মধ্যে লেক্সাস টিন মেলায় বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা এবং মেলার বাইরে ৬০০ টাকা। মি. ফিট প্যাকেজ মেলার বাইরে ৩৭৫ টাকা মেলায় বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ টাকা এবং সঙ্গে একটা বেঙ্গলের জগ ফ্রি।

এই প্যাভিলিয়নের সেলসম্যান ফারদিন সারাবাংলাকে বলেন, শুক্র ও শনিবার বিক্রি ভালো হয়। অন্যান্য দিনে বিক্রি কম হয়। তবে আশা করি মেলার শেষের দিকে বিক্রি ভালো হবে।

মেলায় অংশ নেওয়া নাবিস্ক বিস্কুটের প্যাভেলিয়নে গিয়ে দেখা যায়, মেলা উপলক্ষ্যে তারা ৫০টা প্যাকেজ নিয়ে এসেছে। এর মধ্যে তিনটা প্যাকেজে তারা মেলা উপলক্ষ্যে ছাড় দিয়েছে। প্যাকেজগুলো হচ্ছে- রকমারি, ইত্যাদি ও টকঝাল। প্রতিটা প্যাকেজে ১২ শতাংশ ছাড় দিয়েছে। অন্যান্য প্যাকেজে কোন ছাড় নেই।

ম্যানেজার তানজিল সারাবাংলাকে বলেন, বন্ধের দিনের চেয়ে বিক্রি কম। তারপরও সমস্যা নেই। আশাকরি মেলার শেষের দিকে বিক্রি ভালো হবে।

মেলায় অংশ নেওয়া ফু-ওয়াং এর স্টলে গিয়ে দেখা যায়, তারা মেলা উপলক্ষ্যে ১৭টা প্যাকেজ নিয়ে এসেছে। ৩০০ টাকার উপরে বিস্কুট কিনলে একটা ফ্রুট বোল ফ্রি। এ ছাড়া পাঁচটি ভিন্ন পণ্য কিনলে একটা ফ্রুট বোল ফ্রি।
সেলসম্যান সোহেলি সারাবাংলাকে বলেন, আমাদের বিক্রি মেলার শুরু থেকেই ভালো হচ্ছে। আশা করি সামনে আরও ভালো হবে।

সারাবাংলা/জেজে/এমআই