শনিবার ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৭ মাঘ, ১৪২৪, ২ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯

Live Score

ভোটার তালিকায় লিঙ্গের ঘরে ‘হিজড়া’ সংযুক্ত হচ্ছে

জানুয়ারি ১৩, ২০১৮ | ৮:৫৬ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ‘হিজড়া’ জনগোষ্ঠীর নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ভোটার তালিকায় লিঙ্গের ঘরে ‘হিজড়া’ নামে নতুন একটি ঘর সংযুক্ত করা হচ্ছে। এ জন্য ২০০৯ সালের ভোটার তালিকা আইন এবং ২০১২ সালের ভোটার তালিকা বিধিমালায় সংশোধন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। এর আগে ২০১৩ সালের নভেম্বরে হিজড়া জনগোষ্ঠীর ‘লিঙ্গ পরিচয়’কে রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দেয় সরকার।

ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ শনিবার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বাসস’কে (বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা) জানান, ভোটার তালিকায় নারী ও পুরুষের বাইরে হিজড়া পরিচয়ে ভোটার অন্তর্ভূক্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অচিরেই বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।

তিনি আরও জানান, গত ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ইসির কমিশন বৈঠকে হিজড়াদের ভোটার তালিকায় লিঙ্গ পরিচয় সংক্রান্ত এই ইস্যুটি উত্থাপন করা হয়। ওই বৈঠকে হিজড়াদের লিঙ্গ পরিচয় সংক্রান্ত বিষয়টি ভোটার নিবন্ধন ফরমে অন্তর্ভূক্তির জন্য সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধি সংশোধনে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এখন বিষয়টি চূড়ান্ত করতে প্রশাসনিক প্রক্রিয়া চলছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ভোটার তালিকায় লিঙ্গের ঘরে ‘হিজড়া’ নামে নতুন একটি ঘর সংযুক্ত করা হচ্ছে। এ জন্য ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করার নিবন্ধন ফরমের ১৭ নম্বর ক্রমিকের ঘরে ‘লিঙ্গ পরিচয়’ ছকে এ নারী ও পুরুষের সঙ্গে ‘হিজড়া’ যোগ করা হবে।

ইসির হিসাব অনুযায়ী, বর্তমানে সারাদেশে মোটা ভোটারের সংখ্যা ১০ কোটিরও বেশি। এদের মধ্যে অনেকেই ভোটার। কিন্তু তারা নারী বা পুরুষ পরিচয়ে ভোটার। ইসির সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধি সংশোধন হলে হিজড়া জনগোষ্ঠী নিজেদের লিঙ্গ পরিচয়েই ভোটার হতে পারবেন।

সমাজসেবা অধিদপ্তরের হিসাব অনুযায়ী, সারাদেশে মোট ১০ হাজার হিজড়া জনগোষ্ঠী রয়েছে।

সারাবাংলা/জেআইএল/আইকে