শুক্রবার ২০ জুলাই, ২০১৮, ৫ শ্রাবণ, ১৪২৫, ৫ জিলক্বদ, ১৪৩৯

মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ আইভীর, ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ

জানুয়ারি ১৮, ২০১৮ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর মস্তিস্কে রক্তক্ষরণের প্রমাণ পেয়েছে ল্যাবএইড হাসপাতালে তার চিকিৎসায় থাকা মেডিকেল বোর্ড। বৃহস্পতিবার সিটিস্ক্যান রিপোর্টের পর বিষয়টি সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের কর্পোরেট কমিউনিকেশন বিভাগের অ্যাসিস্টেন্ট জেনারেল ম্যানেজার সাইফুর রহমান লেনিন।

তিনি বলেন, সিটিস্ক্যান রিপোর্টে সেলিনা হায়াৎ আইভীর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের প্রমাণ পাওয়া গেছে। যেটাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে সেরিব্রাল হেমরেজ বলা হয়। শুক্রবার সকালে তার একটি এমআরআই করা হবে। তারপর সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নেব কী করা যায়?

লেনিন বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র স্বাভাবিকভাবেই কথাবার্তা বলছেন, তবে পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত বলছি না। আগামীকাল সকালে এমআরআই করা হবে। তারপর সব চিকিৎসক মিলে পরবর্তী চিকিৎসার ব্যাপারে চিকিৎসকরা সিদ্ধান্ত নেবেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরো সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কনক কান্তি বড়ুয়া রাতে তার চিকিৎসার ব্যাপারে আসবেন।

ল্যাবএইড হাসপাতালে ডা. বরেণ চক্রবর্তীর অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আইভী। তাকে সিসিইউ-১ এ রাখা হয়েছে। তার চিকিৎসায় ৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজ কার্যালয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। তার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা আবুল হোসেন জানান, মেয়র বিকেলে নিজ কার্যালয়ে হঠাৎ অসুস্থ বোধ করেন। এ সময় তার বমিও হয়। পরে তাকে স্যালাইন খাওয়ানো হয়।

মেয়র অসুস্থ হয়ে পড়লে সিটি করপোরেশনের মেডিকেল অফিসার গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে একটি চিকিৎসক দল তার প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। চিকিৎসকরা এ সময় তার প্রেসার লো পাচ্ছিলেন। তাকে তাৎক্ষণিকভাবে স্যালাইন পুশ করার সিদ্ধান্ত নেন তারা। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে অ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

গত ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জে ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ ইস্যুতে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তার অনুসারীদের ওপর সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের অনুসারীরা হামলা করে। পরে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় আইভী আঘাতও পান।

সারাবাংলা/জেএ/একে

মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ আইভীর, ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ
মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ আইভীর, ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ