মঙ্গলবার ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

মিটু আন্দোলন; এবার ধর্ষণের অভিযোগ আকবরের বিরুদ্ধে 

নভেম্বর ২, ২০১৮ | ৪:৪৮ অপরাহ্ণ

রোকেয়া সরণি ।। 

একের পর এক যৌন হয়রানির অভিযোগে পদত্যাগ করা ভারতের সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবরের বিরুদ্ধে এবার ধর্ষণের অভিযোগ এসেছে। অভিযোগকারী যুক্তরাষ্ট্রের ‘ন্যাশনাল পাবলিক রেডিও’(এনপিআর) -এ কর্মরত সাংবাদিক পল্লবী গগৈ। মার্কিন সংবাদপত্র ‘দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট’-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দু’দশক আগের ঘটনার বিস্তারিত বলেছেন তিনি।

এই সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ২২ বছর বয়সে দ্য এশিয়ান পেজ -এ কাজ করতেন তিনি। তখন সেখানকার সম্পাদক ছিলেন আকবর যিনি অনেকের কাছেই তখন একজন তারকা। বিশেষত পল্লবীর মত উঠতি সাংবাদিকদের কাছে তিনি ছিলেন পূজনীয় ব্যক্তি।

আকবরের লেখার ধরন, ভাষার দখলের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে মন দিয়ে তার কাছ থেকে কাজটা শিখে নিতে চেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন পল্লবী। দ্রুত কাজ শিখে নেওয়ায় কাজে যোগ দেওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই দ্য এশিয়ান পেজের উত্তর সম্পাদকীয় বিভাগের দায়িত্ব পেয়ে যান। পল্লবীর অভিযোগ, তার পর থেকেই তার দুর্ভোগ শুরু হয়।

পল্লবীর দাবি, একদিন আকবরের কেবিনে পাতা দেখাতে গিয়েছিলেন তিনি। তখন নিরিবিলি ঘরে একা পেয়ে কাজের প্রশংসা করেই পল্এলবীর দিকে গিয়ে আসেন চুমু খেতে। সেদিন কোনওরকমে সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। তবে চূড়ান্ত অপমানিত বোধ করলেও তখন চাকরি ছাড়ার সাহস পাননি বলে জানিয়েছেন পল্লবী।

এর কয়েকমাস পর মুম্বাইয়ে একটি পত্রিকার উদ্বোধন উপলক্ষে পত্রিকাটির লে আউট দেখার জন্য তাজ হোটেলে নিজের ঘরে পল্লবীকে ডেকে পাঠান আকবর। সেখানে আবারও জোর করে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেন আকবর। সেবারও কোনক্রমে পালিয়ে চলে আসেন পল্লবী। তবে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে পল্লবীর গালে আকবরের নখের আঁচড় লাগে বলে দাবী করেছেন পল্লবী।

এরপর জয়পুরে এক খুনের ঘটনার খবর সংগ্রহ করতে যেয়ে আকবরের হাতে ধর্ষণের শিকার হন বলে অভিযোগ করেছেন পল্লবী গগৈ। তার দাবি আকবরের সাথে গায়ের জোরে পেরে না ওঠায় হার মানতে বাধ্য হয়েছিলেন তিনি। তখন লজ্জা আর সংকোচের কারণে পুলিশের কাছে যাননি বা কাউকে বলেননি বলে জানান তিনি। এতদিনে আরও অনেককে মুখ খুলতে দেখে তিনি সাহস পেয়েছেন বলে মন্তব্য করেন এই সাংবাদিক।

নিজের আইনজীবী মাধ্যমে পল্লবীর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এম জে আকবর। এখনও পর্যন্ত ২০ জনেরও বেশি প্রাক্তন মহিলা সহকর্মী আকবরের বিরুদ্ধে নিগ্রহের অভিযোগ তুলেছেন। এদের মধ্যে শুধুমাত্র প্রিয়া রমানির বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন আকবর। তাকে বদনাম করতে ভুয়া অভিযোগ আনা হয়েছে বলে দাবি করেছেন আদালতে।

সারাবাংলা/আরএফ 

Tags: ,

মিটু আন্দোলন; এবার ধর্ষণের অভিযোগ আকবরের বিরুদ্ধে 
মিটু আন্দোলন; এবার ধর্ষণের অভিযোগ আকবরের বিরুদ্ধে 
মিটু আন্দোলন; এবার ধর্ষণের অভিযোগ আকবরের বিরুদ্ধে