শনিবার ২৩ জুন, ২০১৮, ৯ আষাঢ়, ১৪২৫, ৮ শাওয়াল, ১৪৩৯

মেলায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’

ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৮ | ২:২৬ অপরাহ্ণ

এসএম মুন্না ।।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’-র কাহিনিকে উপজীব্য করে তাকে শিশুদের আরও কাছের এক বন্ধু করে তোলার প্রত্যয়ে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হচ্ছে গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’। এবার মেলায় এসেছে ‘মুজিব’ এর চতুর্থ পর্ব। বইটি প্রকাশ করেছে আওয়ামী লীগের গবেষণা সেল সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)।

১৯৬৭ সালে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি মুজিবুর রহমান তাঁর আত্মজীবনী লেখা শুরু করেন। সেটি অসমাপ্তই রয়ে গেছে শেষ পর্যন্ত। তবু এর মধ্যেও উঠে এসেছে তাঁর শৈশব, বিপ্লবী তরুণ বয়সী দিনগুলো, কারাজীবন এবং তাঁর ‘বঙ্গবন্ধু’ হয়ে ওঠার গল্প।

সিআরআই জানিয়েছে, এর আগে গ্রাফিক নভেলের তিনটি পর্ব প্রকাশিত হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় প্রকাশিত হয়েছে ‘মুজিব ৪ : দিল্লি অভিযান’। প্রকাশের অপেক্ষায় আছে আরও আটটি পর্ব।

বইটি দেখে দারুণ মজা পাচ্ছে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা। খুটে খুটে তারা ছবি দেখেছে ও পড়েছে, জানতে পারছে এই মহান নেতা সম্পর্কে। সেই চিত্রটাই দেখা গেলো বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে সিআরআই এর স্টলে। শুধু এই স্টল নয়, মেলায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর, যুব জাগরণ ও বঙ্গবন্ধু বার্তার স্টলে মিলছে গ্রাফিক নভেলটি।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে শেখ মুজিবুর রহমান ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ‘অল ইন্ডিয়া মুসলিম লীগ কনফারেন্স’-এ যোগ দেন। ওই সময় তাঁর ছাত্র রাজনীতির দুই সহযোদ্ধা মাখন ও নূরুদ্দিনের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে ওঠে। অর্থাভাবে এক টিকেটে তিনজনের ভ্রমণসহ আরও বেশ কিছু মজাদার বিষয় যুক্ত করা হয়েছে এই পর্বে।

কলকাতার ইসলামিয়া কলেজের তৎকালীন রাজনীতিতে শেখ মুজিবুর রহমানের জনপ্রিয়তা অর্জন, দলের স্বার্থে শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক গুরু হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে তর্ক এবং তারপরও গুরুর কাছ থেকে স্নেহ ভালোবাসা লাভের বিষয়গুলো উঠে এসেছে ‘মুজিব গ্রাফিক নোভেল ৪ : দিল্লি অভিযান’ এ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বই আকারে প্রকাশিত হওয়ার পর শিশু-কিশোরদের বিশদভাবে ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশে গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ রচনার মূল্য লক্ষ্য।

শিশু-কিশোর এবং তরুণ প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুকে উপস্থাপনের কাজটি সেভাবে হয়ে ওঠেনি আগে। এ ক্ষেত্রে এগিয়ে আসেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। বঙ্গবন্ধুর ঘটনাবহুল জীবনকে আকর্ষণীয় করে তুলে ধরার জন্য গ্রাফিক নভেল বের করার কাজটি শুরু করেন তিনি।

সিআরআই এর সূত্রে জানা গেছে, ‘বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী অবলম্বনে গ্রাফিক নভেলের কাজটি শুরু হয় ২০১৪ সালে। তার জীবনের ঘটনাবলি সব বয়সের উপযোগী করে সংলাপ ও চিত্রায়নের দুরহ কাজটি সম্ভব করতে অনেকে ভূমিকা রেখেছেন। ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেলের কাজে নিবিড়ভাবে যুক্ত রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গ্রাফিক নভেলটি মূলত ১২ পর্বে তৈরির পরিকল্পনা করা হয়। ‘মুজিব-১’ প্রকাশিত হয় ২০১৫ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে। এরপর সিরিজের আরও দুটি বই মুজিব-২ ও ৩ প্রকাশিত হয়।

প্রথম পর্বে খেলাধুলা, পড়াশোনা, ডাক্তারের কাছ থেকে পালানো, প্রথমবারের মত কারাবরণের মতো বিভিন্ন কৌতূহলোদ্দীপক কাজের পাশাপাশি দেশের প্রতি তরুণ বয়স থেকেই নিজের বিশ্বাসের পক্ষে দৃঢ় অবস্থান নিতে দেখা যায় কিশোর শেখ মুজিবকে। দ্বিতীয় পর্বে তার রাজনীতির হাতেখড়ির পাশাপাশি তার প্রেরণা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। একই সঙ্গে পিতা ও পুত্রের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ফুটবল খেলার প্রতিযোগিতার ঘটনাও বিশদভাবে জানা যায়। মুজিব-৩ এ বঙ্গবন্ধুকে স্কুল ও কলেজের শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, দুর্ভিক্ষের সময় মানবিক ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে।

নভেলটির শিল্পী সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময় ও  এ বি এম সালাউদ্দিন শুভ। প্রকাশক বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র  রাদওয়ান সিদ্দিক ববি ও বিদ্যুৎ-জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

সিআরআই-এর স্টলে গ্রাফিক নভেল সিরিজের ৪ টি বই এবং ‘মুজিব -১’ এর ইংরেজি অনুবাদ পাওয়া যাচ্ছে।

সিআরআইয়ের বিক্রয়কর্মী আবু আসিফ ইমন জানিয়েছে, একসঙ্গে চারটি গ্রাফিক নভেল কিনলে দাম পড়বে ৪৪০ টাকা।

সারাবাংলা/এসএমএম/পিএম

 

 

 

মেলায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’
মেলায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’