রবিবার ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

যুব গেমসের টুকিটাকি

মার্চ ১৩, ২০১৮ | ৭:৩১ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপেন্ডন্ট

বালক ফুটবলে রংপুর, বালিকায় চট্টগ্রামের ব্রোঞ্জ
বাংলাদেশ যুব গেমসের ফুটবল ডিসিপ্লিনে বালক গ্রুপে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে রংপুর বিভাগ। অন্যদিকে বালিকা গ্রুপে ব্রোঞ্জ জিতেছে রংপুর বিভাগ মঙ্গলবার কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে দুটি স্থান নির্ধারণী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। । ম্যাচের আগে দুটি ম্যাচের খেলোয়াড়রা নেপালে বিমান দূর্ঘটনায় নিহত সকলের রুহের মাগফেরাত কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন করেন। বেলা ১১টার ম্যাচে বালিকা বিভাগে মুখোমুখি হয় খুলনা ও চট্টগ্রাম বিভাগ। একপেশে ম্যাচটি চট্টগ্রাম চম্পা মারমার হ্যাটট্রিকে সহজেই জিতে নেয়। চম্পা মারমার ৫টি গোল ছাড়াও সশু মারমা একটি গোল করেছেন। বালক বিভাগের স্থান নির্ধারনী ম্যাচটি ঢাকা বিভাগকে ৩-০ ব্যবধানে হারায় রংপুর বিভাগ। রংপুর বিভাগের মজিবুর রহমান জনি দুটি গোল করেছে। এর বাইরে আপন চন্দ্র রায় একটি গোল করেছে। ঢাকা বেশ কিছু সুযোগ পেলেও বক্সেও ভেতওে ঢুকে সুযোগটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়।

বালক বিভাগের ম্যাচ শেষে বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, পাইওনিয়ার ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান অমিত খান শুভ্র, বাফুফে সদস্য শওকত আলী খান জাহাঙ্গীর বালক ও বালিকা বিভাগে ব্রোঞ্জ জয়ী খেলোয়াড়দের হাতে পদক তুলে দেন।

বক্সিংয়ে রাজশাহীর জয় জয়কার
বাংলাদেশ যুব গেমসে সেমিফাইনাল শেষ হয়েছে বক্সিং ডিসিপ্লিনের। তিনটি ক্যাটাগরিতে ফাইনাল সমাপ্ত হয়েছে। এতে রাজশাহীর জয় জয়কার। সবকটিতেই চ্যাম্পিয়ন রাজশাহীর বক্সাররা।

৪৮ কেজিতে রাজশাহীর ফাতেমা আক্তার ঢাকার যমুনা আক্তারকে, তরুন ৪৯ কেজিতে রাজশাহীর অনিক হাওলাদার রাজশাহীর আবির রহমানকে, তরুন ৫২ কেজিতে রাজশাহীর আবু তালহা রাজশাহীর আব্দুর জাব্বারকে হারিয়ে স্বর্নপদক পায়।

স্কোয়াশে সেরা চট্টগ্রাম
চট্টগ্রাম বিভাগ বাংলাদেশ যুব গেমসের স্কেয়াশে সেরা সাফল্য দেখিয়েছে। তারা বালক ও বালিকা উভয় গ্রুপে স্বর্ণপদক জয় করে এ কৃতিত্ব দেখায়। মঙ্গলবার বিএফ শাহীন স্কুল স্কোয়াশ কোর্টে স্কোয়াশের পদক লড়াইয়ে বালক গ্রুপে চট্টগ্রাম বিভাগ ২-১ সেটে খুলনা বিভাগকে হারিয়ে স্বর্ণপদক জয় করে। রৌপ্য পেয়েছে খুলনা। তবে সিলেট বিভাগ ২-০ সেটে ময়মনসিংহ বিভাগকে হারিয়ে ব্রোঞ্জপদক পেয়েছে। এদিকে বালিকা গ্রুপের পদক লড়াইয়ে চট্টগ্রাম বিভাগ ২-০ সেটে বরিশাল বিভাগকে হারিয়ে স্বর্ণপদক জয় করে। রৌপ্য পেয়েছে বরিশাল এবং ব্রোঞ্জপদক লাভ করেছে খুলনা বিভাগ।

ভলিবল বালিকা বিভাগে ব্রোঞ্জ খুলনার
যুব গেমস ভলিবলের বালিকা বিভাগে ব্রোঞ্জ জিতেছে খুলনা বিভাগ। মঙ্গলবার পল্টনস্থ ভলিবল স্টেডিয়ামে স্থান নির্ধারনী খেলায় খুলনা ৩-১ সেটে ময়মনসিংহকে পরাজিত করে ব্রোঞ্জপদক জেতে। বুধবার দুপুর সাড়ে তিনটায় দুই নম্বর মাঠে বালিকা বিভাগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। স্বর্ণপদকের জন্য লড়বে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ। এদিকে বালক বিভাগের সেমিফাইনালে ওঠেছে ক-গ্রুপ থেকে বরিশাল বিভাগ (৯ পয়েন্ট) ও ঢাকা বিভাগ (৬ পয়েন্ট) এবং খ- গ্রুপ থেকে খুলনা বিভাগ (৮ পয়েন্ট) ও চট্টগ্রাম বিভাগ (৬ পয়েন্ট)। বুধবার সকাল ৮টায় প্রথম সেমিফাইনাল ও সাড়ে নয়টায় দ্বিতীয় সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া দুপুর ২.৩০ টায় বালক বিভাগের ব্রোঞ্জপদক ম্যাচ ও ৩.৩০টায় এক নম্বর মাঠে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। খেলা শেষে পুরস্কার তুলে দেবেন বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক এনডিসি, পিএসসি।

তায়কোয়ানডোতে সেরা চট্টগ্রাম বিভাগ
জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ জিমনেশিয়ামে অনুষ্ঠিত যুব গেমসের তায়কোয়ানডোতে সেরা হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগ। ৭টি স্বর্ন,৪টি রৌপ্য এবং ৭টি ব্রোঞ্জ জিতে সেরা হয়েছে চট্টগ্রাম। আজ মঙ্গলবার তায়কোয়ানডো বালক মাইনাস ৫১ কেজিতে স্বর্ণ পদক জয় করেন রংপুরের মামুনুর রশিদ। এই ক্যাটাগরিতে ঢাকা বিভাগের মো: শেখ সাদি রৌপ্য এবং ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন রাজশাহীর মো: সবুুজ শেখ ও রংপুরের নাঈম ইসলাম। বালক মাইনাস ৫৫ কেজি ক্যাটাগরিতে প্রথম হন ঢাকার মো: ইলিয়াস। রৌপ্য পদক জিতেন ঢাকার মো: মাহবুবুর রহমান। অপরদিকে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন রাজশাহীর ফয়সাল উদ্দিন ও চট্টগ্রামের নাফিউল আলম। বালিকা মাইনাস ৪৬ কেজি ইভেন্টে স্বর্ণ পদক জিতেন ঢাকা বিভাগের খাতুনে জান্নাত এশা। এই ক্যাটাগরিতে রৌপ্য পদক জিতেন চট্টগ্রামের নৌরিন হুদা অমি। আর ব্রোঞ্জ পদক জিতেন চট্টগ্রামের ফিরোজা রাগিব ও ময়মনসিংহের সুরাইয়া আক্তার। বালিকা মাইনাস ৪৯ কেজি ইভেন্টে প্রথম হন চট্টগ্রাম বিভাগের ইসরাত জাহান রিয়া। রৌপ্য পদক জিতেন একই বিভাগের জান্নাতুল তামান্না তাবাচ্ছুম। আর ব্রোঞ্জ জিতেছেন ঢাকার সাবিনা আক্তার ও ময়মনসিংহের মজিদা আক্তার মলি।বালিকা দ্বৈতে চট্টগ্রাম বিভাগের ইসরাত জাহান রিয়া ও সাবিহা সুলতানা রিমি জুটি স্বর্ণ জিতেন। আর রৌপ্য ও বোঞ্জ জিতেছেন যথাক্রমে ঢাকা ও ময়মনসিংহের মেয়েরা। বালক দ্বৈতে স্বর্ণপদক জিতেন খুলনার সোহাগ কুমার চয়ন ও ফাহিম আহম্মেদ জুটি। অপরদিকে রৌপ্য ও বোঞ্জ পদক জিতেন রাজশাহী, ঢাকা ও রংপুর বিভাগের ছেলেরা।

বালিকা হ্যান্ডবলে সেরা রাজশাহী
বাংলাদেশ যুব গেমস চুড়ান্ত পর্বের বালিকা হ্যান্ডবলে সেরা হয়েছে রাজশাহী বিভাগ। মঙ্গলবার ক্যাপ্টেন (অব.) এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ ফাইনালে রাজশাহীর মেয়েরা ২২-১৭ গোলে ময়মনসিংহ বিভাগকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতে নেয়। প্রথমার্ধে বিজয়ীরা ১৪-৫ গোলে এগিয়ে ছিল। রাজশাহীর পূর্ণিমা রানী সর্বোচ্চ ৮টি এবং শাহনাজ ৬টি গোল করেন। রৌপ্যপদক জয়ী ময়মনসিংহের আল্পনা ৭ ও মিষ্টি ৫টি গোল করেন। হ্যান্ডবলের বালক বিভাগের ফাইনাল বুধবার বেলা আড়াইটায় একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে। এ খেলার মধ্যদিয়েই শেষ হবে বাংলাদেশ যুব গেমসের হ্যান্ডবল ডিসিপ্লিনের খেলা।

ফাইনালের আগে বালিকাদের তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা ও খুলনা বিভাগ। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে খুলনা ১৬-১৪ গোলে ঢাকা বিভাগকে হারিয়ে ব্রোঞ্জপদক জিতে নেয়। বালকদের ফাইনাল পেছানো হলেও মঙ্গলবার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্রোঞ্জ জয়ের লড়াইয়ে মুখোমুখি হয় বরিশাল ও ঢাকা বিভাগ। এই ম্যাচে ঢাকার বিপক্ষে দাঁড়াতেই পারেনি বরিশাল। ২৭-১০ গোলের বড় ব্যবধানে বরিশালকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতে নেয় ঢাকা।

কুস্তিতে চ্যাম্পিয়ন খুলনা
বাংলাদেশ যুব গেমস চুড়ান্ত পর্বে তরুন-তরুনী বিভাগে ১৪টি ওজন শ্রেণীতে পদক জয়ের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে শেষ হলো কুস্তি ডিসিপ্লিন। এই ডিসিপ্লিনে সেরা হয়েছে খুলনা। তারা ৪ স্বর্ণ, ১ রৌপ্য ও ৬ ব্রোঞ্জপদক জিতে চ্যাম্পিয়ন হয়। রানার্সআপ চট্টগ্রামের ছেলে-মেয়েরা পেয়েছে ৪টি স্বর্ণসহ মোট ৬টি পদক। প্রতিযোগিতার শেষ দিনে তরুনদের গ্রুপে ৪২ কেজি ওজন শ্রেণীতে যুব গেমসের মাধ্যমে ক্যারিয়ারে প্রথম স্বর্ণপদক জয়ের স্বাধ পেয়েছেন ময়মনসিংহের কৃষক পরিবারের ছেলে নাসির মিয়া। ৪৬ কেজিতে স্বর্ণ পান খুলনা বিভাগের সজিব হালদার। ৫০ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন রাজশাহী বিভাগের দেলোয়ার হোসেন। ৫৪ কেজিতে স্বর্ণ লাভ করে রিপন খান। ৫৮ কেজিতে স্বর্ণ জিতে নেন রংপুরের জয়ন্ত রায়। এবং ৬৩ কেজিতে সেরা হন খুলনার নাঈম শেখ। বালক ৬৯ কেজিতে খুলনার আশিকুর রহমান স্বর্ণপদক জিতে নেন।

এদিকে তরুনীদের ৩৮ কেজিতে স্বর্ণপদক জয় করেন রংপুর বিভাগের ফারিয়া আক্তার। ৪০ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন রাজশাহীর শিউলী আক্তার। এছাড়া ৪৩ কেজিতে চট্টগ্রামের সিবলিকা তালুকদার, ৪৬ ও ৪৯ কেজিতে একই বিভাগের যথাক্রমে মাসিনু মারমা, ও সইপ্রু মারমা, ৫২ কেজিতে স্বর্ণ জয় করে চট্টগ্রামের সরনিকা তালুকদার এবং ৫৬ কেজিতে রাজশাহী বিভাগের রাশিদা খাতুন স্বর্ণপদক জিতে নেন।

খেলা শেষে বিজয়ীদের পদক পরিয়ে দেন বিওএ’র মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিওএ’র উপমহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু ও আসাদুজ্জামান কোহিনুর। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কুস্তি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান পালোয়ান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেসবাহ উদ্দিন আজাদ।

ব্যাডমিন্টনে উর্মির দ্বিমুকুট
তরুনীদের ব্যাডিমিন্টনে দ্বিমুকুট জিতেছে খুলনার উর্মি আক্তার। এককের ফাইনালে কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই করতে পারেননি সিলেটের জেরিন। তাকে সরাসরি ২১-১০, ২১-৪ পয়েন্টে হারায় উর্মি। দ্বৈতে উর্মি ও সাথী জুটি ২১-১৪, ২১-১৪ পয়েন্টে চট্টগ্রামের তিশা ও ফারজানা জুটিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। তরুণ এককে চট্টগ্রামের সিবগাত ২২-২০, ২১-১৪ পয়েন্টে সিলেটে লোকমানকে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয়।

দ্বৈতে সিলেটের মঙ্গল ও গৌরব জুটি ২১-৯, ২৪-২২ পয়েন্টে চট্টগ্রামের সিবগাত ও আকিব জুটিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সভাপতি ও এলজিআরডি সচিব আবদুল মালেক, সেক্রেটারি আমির হোসেন বাহার, বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা, উপমহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু ও আসাদুজ্জামান কহিনুর, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শাটলার মরিয়ম তারেকসহ ফেডারেশনের কর্মকর্তারা।

সারাবাংলা/এমআরপি

যুব গেমসের টুকিটাকি
যুব গেমসের টুকিটাকি
যুব গেমসের টুকিটাকি