বৃহস্পতিবার ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৫ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

রমনা পার্কে সাংবাদিকের ওপর হামলা, আটক ১

সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮ | ৭:১৭ অপরাহ্ণ

।। স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

ঢাকা : রাজধানীর রমনা পার্কে এলাকায় সারাবাংলার বিশেষ প্রতিনিধি ও সিনিয়র সাংবাদিক আজমল হক হেলালের উপর অতর্কিত হামলা করেছে কয়েকজন দুর্বৃত্ত। এসময় হামলাকারীদের একজনকে আটক করা হয়েছে।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) বেলা সোয়া ১১টার দিকে রমনা পার্কের বকুলতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পার্কের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্যদের সহযোগীতায় রমনা থানা পুলিশ হামলাকারীদের মধ্যে নাজির হোসেন নামে একজনকে আটক করে। এ ঘটনায় রমনা থানায় একটি হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সাংবাদিক আজমল হক বলেন, বেলা সোয়া ১১টার দিকে পার্কের বকুল তলা এলাকায় নাজিরসহ আরও চার থেকে পাঁচজন ব্যক্তি হঠাৎ তার সঙ্গে অকথ্য ভাষায় কথা বলতে বলতে তার ওপর হামলা করে। এসময় নিজেকে রক্ষা করতে পার্কের এক নম্বর গেইট পৌঁছে যান তিনি। হামলাকারীরাও তার পেছন পেছন পেছন যায় এবং গেইটের কাছের এক ডাব বিক্রেতার কাছে থাকা ধারালো দা নিয়ে নাজির তার ওপর হামলা করে।

দ্রুত পার্কের দায়িত্বে থাকা একজন আনসার সদস্যকে বিষয়টি জানান এই সাংবাদিক। তারা দ্রুত রমনা থানা পুলিশের সহযোগীতায় হামলাকারীদের হাত থেকে আজমল হক হেলালকে উদ্ধার করে। পরে এ ঘটনায় রমনা থানায় একটি হত্যা চেষ্টার মামলা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আটক নাজিরকে রমনা থানায় নেওয়ার পর সে নিজেকে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে পরিচয় দেন। এ সময় তিনি থানার ওসিসহ উপস্থিত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সামনে নিজের ক্ষমতা জাহির করতে থাকেন। পরে তার সঙ্গে থাকা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে ইস্যু করা কার্ডটি জব্দ করে রমনা থানা পুলিশ।

নাজির নিজেকে বেইলি রোড আওয়ামী লীগের পদধারী নেতা বলেও পরিচয় দেন।

কী কারণে হামলা করা হয়েছে সে বিষয়ে নিশ্চিত নন আজমল হক হেলাল। তবে রমনা পার্কের গাছ চুরি, নেশার আসর এবং বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ করার কারণে এই হামলা হতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি। হামলাকারীরা ওইসব অনিয়মের সিন্ডিকেট সদস্য বলেও ধারণা তাঁর।

এদিকে, সিনিয়র সাংবাদিকের উপর হামলার খবর পেয়ে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি আবু জাফর সূর্য, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমেদ রাজু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মাসুদ সহ শতাদিক সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ছুটে যান থানায়। পরে বিষয়ে যথাযত ব্যবস্থার আশ্বাস পেয়ে তাঁরা থানা থেকে ফিরে যান।

এ বিষয়ে রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম সারাবাংলাকে বলেন, এ ঘটনায় আটকৃত নাজিরের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ওসি বলেন, ‘সাংবাদিক হেলাল অত্যন্ত ভালো মানুষ। তাঁকে আমি অনেক আগ থেকে চিনি। তার উপর হামলার ঘটনা শুনে আমি নিজেও অবাক হয়েছি।’ কেনো আর কী কারণে হামলা হয়েছে সে রহস্য অচিরেই উদঘাটন করা হবে বলেও জানান তিনি।

সারাবাংলা/এসএইচ/এসএমএন

 

Tags: ,

রমনা পার্কে সাংবাদিকের ওপর হামলা, আটক ১
রমনা পার্কে সাংবাদিকের ওপর হামলা, আটক ১
রমনা পার্কে সাংবাদিকের ওপর হামলা, আটক ১