সোমবার ১৭ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ৩রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

রূপগঞ্জকে ‘আওয়ামী লীগ শূন্য করার ষড়যন্ত্র চলছে’

নভেম্বর ১৩, ২০১৮ | ৭:০৫ অপরাহ্ণ

।। স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-১ আসন রূপগঞ্জকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব শূন্য করতে একটি কুচক্রিমহল ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেছেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা ।

মঙ্গলবার ( ১৩ অক্টোবর) বিকেল ৫টায় তারাব পৌরসভার বিশ্বরোড সংলগ্ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের কার্যালয়ে রূপগঞ্জে (১ আসন) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। আ.লীগের মনোনয়ন ইস্যুতে নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর বিরুদ্ধে `‘কুচক্রি মহলের ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা প্রচারণা’র বিরুদ্ধে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

আওয়ামী লীগ নেতা তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে একটি কুচক্রি মহল সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা ও ষড়যন্ত্র করে আসছে। এই ষড়যন্ত্র এখনও অব্যাহত আছে। এ অবস্থায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। রূপগঞ্জ-১ আসনকে আওয়ামী লীগ শূন্য করতে গভীরভাবে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে। আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু হলে যারা প্রার্থী হতে ইচ্ছুক তারা মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছে আমরাও করেছি। গণতন্ত্রের ধারাকে সমুন্নত রাখতে আমরা সবাই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি। আমরা মনোনয়নপত্র কিনেছি মনোনয়ন বোর্ডে গোলাম দস্তগীর গাজীর পক্ষে কথা বলার জন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘একটি মহল গোলাম দস্তগীর গাজীকে বিদেশি বলে আখ্যা দিয়েছেন। গাজী ২০০৫ সালে রূপগঞ্জে আসেন। এরপর তিনি দুই দুইবার সংসদ নির্বাচিত হয়েছেন। যে মানুষটি তখন বিদেশি হলেন না এখন কী করে হন। ২০০৬ সালের নির্বাচনে গাজীকে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। কিন্তু রাজনৈতিক পট-পরিবর্তনের কারণে তখন নির্বাচন হয়নি। পরবর্তীতে ২০০৮ সালের নির্বাচনেও গোলাম দস্তগীরকে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ এবং বিপুল জনসমর্থনে তিনি সংসদ নির্বাচিত হন। এরপর ২০১৪ সালের নির্বাচনেও বিপুল ভোটে তিনি সংসদ হিসেবে জয়ী হন। তখনও যেমন গোলাম দস্তগীর গাজীকে আওয়ামী পরিবার সমর্থন দিয়ে এসেছে এখনও সেই সমর্থন অব্যাহত রয়েছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।’

রূপগঞ্জের উন্নয়নে গোলাম দস্তগীর গাজীর বিকল্প নেই জানিয়ে তোফাজ্জল হোসেন আরও বলেন, ‘একজন নেতা হিসেবে তিনি যেভাবে সবার হৃদয় জয় করেছেন অন্য কোনো রাজনৈতিক নেতা এভাবে কারও মন জয় করতে পারেনি। রূপগঞ্জবাসী যখন যেটা বলেছেন গোলাম দস্তগীর তখন সেটাই দিয়েছেন। ২০০৮ সালে রূপগঞ্জে কী অবস্থা ছিল আর এখন কি অবস্থা সেটা সবারই জানা। এখন প্রতিটি এলাকার রাস্তাঘাট, স্কুল-কলেজ, মাদরাসা, গ্যাস, বিদ্যুৎ,পানি ও পয়ঃনিস্কাশনের সমস্যার সমাধান করেছেন। বদলে গেছে শিক্ষার চিত্র, বদলে গেছে সামাজিক চিত্র। যিনি রূপগঞ্জের উন্নয়নের জন্য দিন রাত পরিশ্রম করছেন, আর সেই ব্যক্তিকে নিয়ে যারা অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র করছেন তাদেরকে ধিক্কার জানাই।’

সংবাদ সম্মেলনে রূপগঞ্জ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলালীগ ও শ্রমিকলীগের ৯০ শতাংশ কর্মীর উপস্থিতিতে মনোনয়নে গোলাম দস্তগীর গাজীকে সমর্থন জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ সাইফুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মানজারী আলম টুটুল, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, জেলা পরিষদের সদস্য শ্রী শীলা রাণী পাল, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ স্বপন, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক বাচ্চু মিয়া, রূপগঞ্জ  উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মেহের, সাধারণ সম্পাদক নাঈম ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফেরদৌসী আক্তার রিয়া, সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা, তারাব পৌরসভা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি  হাজী মোফাজ্জল হোসেন ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি হাজী মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ আলমাছসহ অন্যরা।

সারাবাংলা/এসজে/একে

Tags: , ,

রূপগঞ্জকে ‘আওয়ামী লীগ শূন্য করার ষড়যন্ত্র চলছে’
রূপগঞ্জকে ‘আওয়ামী লীগ শূন্য করার ষড়যন্ত্র চলছে’
রূপগঞ্জকে ‘আওয়ামী লীগ শূন্য করার ষড়যন্ত্র চলছে’