শনিবার ২৩ জুন, ২০১৮, ৯ আষাঢ়, ১৪২৫, ৮ শাওয়াল, ১৪৩৯

রোনালদো-নাদালকে টপকে লরিয়াস অ্যাওয়ার্ড ফেদেরারের

ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৮ | ১:৪১ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক

২০১৮ সালে টানা ১২ ম্যাচ অপরাজিত রয়েছেন রজার ফেদেরার। ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে রাফায়েল নাদালকে হটিয়ে রেকর্ড গড়ে সবচেয়ে বেশি বয়সে পুরুষ এককে টেনিস র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠে আসা ফেদেরার সবশেষ নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত রটারডাম ওপেনের শিরোপা জিতেছেন।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডনের ওপেনের শিরোপা জেতা ফেদেরার ২০১৭ সালের লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ারের পুরস্কার জিতে নিয়েছেন। ষষ্ঠবারের মতো তিনি এই পুরস্কার জিতলেন। ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসউইমেন অব দ্য ইয়ার ২০১৭ সালের পুরস্কার উঠেছে টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের হাতে। নিজের ২৩তম গ্র্যান্ডস্ল্যাম ট্রফির জন্য এ পুরস্কার পান মার্কিন এ কৃষ্ণকলি।

ফেদেরারের ক্যারিয়ারে এখন ৯৭টি শিরোপা। রটারডাম ওপেনের ফাইনালে ৩৬ বছর বয়সী ফেদেরার দ্বিতীয় বাছাই বুলগেরিয়ার গ্রিগর দিমিত্রভকে ৬-২, ৬-২ গেমে সরাসরি সেটে উড়িয়ে দিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেন। শিরোপা জিততে ফেদেরারকে লড়তে হয় মাত্র ৫৫ মিনিট। টেনিসের আধুনিক যুগে একমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের জিমি কনর্স ফেদেরারের থেকে বেশি শিরোপা জিতেছেন। কনর্সের শোকেসে শিরোপা ১০৯টি। টেনিসের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩০৩ সপ্তাহ টানা নাম্বার ওয়ান থাকার রেকর্ড এখনও রজার ফেদেরারের।

লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ারের পুরস্কার জেতার দৌড়ে ফেদেরার ছাড়া আরও ছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ আইকন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, ফর্মুলা ওয়ানের চ্যাম্পিয়ন লুইস হ্যামিলটন, টেনিসের স্প্যানিশ আইকন রাফায়েল নাদালরা।

লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টসম্যান অব দ্য ইয়ারের পুরস্কার জেতার পর সংবাদ মাধ্যমে ফেদেরার জানান, ‘সময়টা সত্যিই দুর্দান্ত কাটছে। কখনোই বিশ্বাস করিনি এভাবে ফিরে আসবো আর এই পুরস্কার জিতবো। এর অর্থ পৃথিবী আমার সঙ্গেই রয়েছে। আবারও স্বরূপে ফিরে আসতে পারাটা সত্যিই আবেগের। গত বছরটা আমার জন্য বিশেষ কিছু সময় নিয়ে এসেছিল। সব মিলিয়ে সম্ভাব্য সব কিছুই আমি অর্জন করেছি। সত্যিকার অর্থেই আমি দারুন খুশি।’

২০০৫ ও ২০১২ সালের পর তৃতীয়বারের মতো রটারডামের শিরোপা জিতেছেন ২০ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ফেদেরার। গত ১৩ মাসে তিনটি মেজর টুর্নামেন্ট জিতে ফেদেরার র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থানের কাছাকাছি আসেন। চলতি বছরের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন তাকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে। অথচ গত বছর হাঁটুর অস্ত্রোপচারের পর জানুয়ারিতে র‌্যাংকিংয়ে ১৭তম স্থানে ছিলেন তিনি।

এছাড়া লরিয়াস বেস্ট স্পোর্টিং মোমেন্টের পুরস্কার জিতেছে ২০১৬ সালে বিমান দুর্ঘটনায় পড়া ফুটবল ক্লাব শাপেকোয়েন্স। ওই দুর্ঘটনায় দলটির অধিকাংশ খেলোয়াড় ও কোচকে হারায় ব্রাজিলিয়ান ক্লাবটি।

ফর্মুলা ওয়ানের চ্যাম্পিয়ন দল মার্সিডিস জিতেছে টিম অব দ্য ইয়ারের পুরস্কার। স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে টপকে তারাই জেতে এই পুরস্কার। মার্সিডিসের চ্যাম্পিয়ন লুইস হ্যামিলটন জানান, ‘আমাদের টিমে অনেক অভিজ্ঞ আছেন। আমি তাদের অংশ হতে পেরে গর্বিত।’

হুইল চেয়ার অ্যাথলেট মাইকেল হুগো জিতেছেন স্পোর্টসপারসন অব দ্য ইয়ারের পুরস্কার। এছাড়া, কামব্যাক অব দ্য ইয়ারের পুরস্কারটাও জিতেছেন রজার ফেদেরার। এই তালিকায় ছিল গতবার লা লিগায় হোঁচট খেয়ে এই মৌসুমে অপরাজিত শীর্ষে থাকা বার্সেলোনা, আমেরিকান অ্যাথলেট জাসটিন গ্যাটলিন আর ব্রাজিলের ক্লাব শাপেকোয়েন্স।

সারাবাংলা/এমআরপি

রোনালদো-নাদালকে টপকে লরিয়াস অ্যাওয়ার্ড ফেদেরারের
রোনালদো-নাদালকে টপকে লরিয়াস অ্যাওয়ার্ড ফেদেরারের