বৃহস্পতিবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং , ৪ঠা মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

‘শক্তিতে না হলেও বুদ্ধিতে এগিয়ে আছি আমরা’

ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ | ১০:১১ অপরাহ্ণ

।।  সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: প্রতিবছর যে বাংলাদেশে এত ধরনের অলিম্পিকে অংশ নেয়, যেখানে দৌড় ঝাঁপ হয়, বাংলাদেশ তাতে কতটা সোনা পেয়েছে?— ড. জাফর ইকবালের এই প্রশ্নে নড়ে উঠে ছেলেমেয়েরা। সত্যিই তো, শক্তির অলিম্পিকে তো কোনো সোনা এখনও পায়নি বাংলাদেশ!

আবার মুখ খুলেন মুহাম্মদ জাফর ইকবাল— কিন্তু বুদ্ধির অলিম্পিকে আমরা সোনা পেয়েছি। এ বছর গণিত অলিম্পিয়াডে আমরা সোনা পেয়েছি, রোবট অলিম্পিয়াডেও সোনা পেয়েছি। মানে শক্তিতে খুব কিছু করতে না পারলেও বুদ্ধিতে ঠিক এগিয়ে যাচ্ছি আমরা।

মুহাম্মদ জাফর ইকবালের এই কথায় হুল্লোড় পড়ে যায় ড্যাফোডিল আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে থাকা দর্শকদের মধ্যে। এখানে তারা জড়ো হয়েছেন আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড ও আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডের পদকজয়ীদের সংবর্ধনা দিতে।

এ বছর ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত দুই আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে আফ্রিকার বতসোয়ানায় অনুষ্ঠিত ১৫তম আন্তর্জাতিক জুনিয়ার সায়েন্স অলিম্পিয়াডে দুইটি রৌপ্য পদকের পাশাপাশি চারটি ব্রোঞ্জ পায় বাংলাদেশ। এদিকে, ফিলিপিনের রাজধানী ম্যানিলায় অনুষ্ঠিত ২০তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে স্বর্ণপদকসহ চারটি পদক জয় করে।

এ বছর প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক রোবট আলিম্পিয়াডে যোগ দেয় বাংলাদেশ। গত বছরই রোবট অলিম্পিয়াডে সদস্যপদ পাওয়া বাংলাদেশ এক বছরের মধ্যেই স্বর্ণপদক পেয়ে আলোচনায় উঠে আসে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স ও মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপার্সন লাফিফ জামাল এ বছরের আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডের দলটির নেতৃত্ব দেন।

তিনি বলেন, রোবট অলিম্পিয়াডের ১০টি বিভাগের সাতটিতেই আমাদের অংশগ্রহণের সুযোগ নেই। কারণ সে বিভাগগুলোতে অংশ নিতে যেমন যন্ত্রপাতি বা দক্ষতা লাগে, তা আমাদের নেই। কিন্তু যে তিনটি বিভাগে আমরা অংশ নিয়েছি তাতে আমরা ভালো করেছি।  বিশেষ করে যে বিভাগে বাংলাদেশ স্বর্ণপদক পেয়েছে, সে বিভাগে ১৫টি দেশের ৫৩টি দলের কেউই স্বর্ণ পদক পায়নি।

এ বছর রোবট অলিল্পিয়াডে স্বর্ণপদক পেয়েছে চিটাগাং গ্রামার স্কুলের (ঢাকা) কাজী মোস্তাহিদ লাবিব, তাফসির তারহীম ও ম্যাপল লিফ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের মো. মেহের মাহমুদ। দুটি ‘হাইলি রিকমেন্ডেড’ পদক পায় রবোটাইগার্স ও সানবিম স্কুলের নাশিতাত যাইনাহ রহমান ও আগা খান স্কুলের যাহরা মাহজারীন পূর্বালীর দল রোবোচ্যালেঞ্জার্স। অন্য পুরস্কারটি আসে ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরিতে সিনিয়র গ্রুপে। লালবাগ সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের মো. খায়রুল ইসলাম ও ঢাকা কলেজের সানি জুবায়েরের টিম এই ক্যাটাগরিতে লাভ করে ‘টেকনিক্যাল পদক’।

অন্যদিকে, আন্তর্জাতিক জুনিয়ার সায়েন্স অলিম্পিয়াডে রৌপ্য পদক অর্জন করেছে নটরডেম কলেজের ইমতিয়াজ তানভীর রহিম ও সেন্ট গ্রেগরিজ হাই স্কুলের আবরার তাসনিম আবির। নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুলের মুয়াম্বর সরয়ার নিবিড়, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের আবসার খান সিয়াম ও মিনহাজুর রহমান চৌধুরী। এছাড়াও বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজের অভিষেক মজুমদার সন্তু পেয়েছেন ব্রোঞ্চ পদক।

ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনোভেশন ও এন্টারপ্রেনিউরশিপ বিভাগের সহযোগিতায় এই সংবর্ধনা আয়োজন করে বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স ও মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারং বিভাগ।

সারাবাংলা/এমএ/টিআর

Tags:

‘শক্তিতে না হলেও বুদ্ধিতে এগিয়ে আছি আমরা’
‘শক্তিতে না হলেও বুদ্ধিতে এগিয়ে আছি আমরা’
‘শক্তিতে না হলেও বুদ্ধিতে এগিয়ে আছি আমরা’