রবিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং , ১২ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন নারীরা

ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৯ | ২:৪৭ অপরাহ্ণ

রোকেয়া সরণি ডেস্ক।।

কেরালার শবরীমালা মন্দিরে সব বয়সী নারীরা যেতে পারবেন। মন্দিরে প্রবেশে নারীদের আর কোন বাধা নেই। গত বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতের সর্ব্বোচ্চ আদালত এই রায় দেয়।

রায়ে বলা হয়, ভারতের সংবিধান অনুযায়ী প্রত্যেক নারীর মন্দিরে যাওয়া গণতান্ত্রিক অধিকার। এক্ষেত্রে কোন নারী বঞ্চিত হবেন না। প্রতিটি নিয়ম সমানাধিকারের ভিত্তিতে হওয়া উচিত।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ভারতের সুপ্রীম কোর্টের রায়ে একশ বছরের রীতি ভেঙ্গে প্রথমবারের মতো মন্দিরে প্রবেশাধিকার পান নারীরা। কিন্তু এই রায়ের বিরুদ্ধে কেরালায় বিক্ষোভ চলতে থাকে। রায় পুনঃর্বিবেচনার আবেদন আসে। এরপর ৬৫ টি আবেদনের শুনানি করা হয়। গত বুধবার পাঁচ বিচারপতির সমন্নয়ে গঠিত বেঞ্চ শুনানি শেষে সব বয়সী নারীদের মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি দিয়ে রায় প্রকাশ করে। সুপ্রীম কোর্টের এই রায় মেনে নিয়েছে শবরীমালা মন্দিরের পরিচালন কর্তৃপক্ষ ত্রাভাঙ্কোর দেবস্বম বোর্ড।

দেবস্বম বোর্ডের আইনজীবী রাকেশ দ্বিবেদী বলেন, শারীরিক কোন কারণে নারীরা পিছিয়ে থাকতে পারেন না। মন্দিরে ঢোকা নারীদের অধিকার।

প্রসঙ্গত, কেরালার শবরীমালা মন্দিরে ১০ থেকে ৫০ বয়সের কোন নারী ঢুকতে পারতেন না। গত বছর সেপ্টেম্বরে ভারতের সুপ্রীম কোর্ট মন্দিরে নারীদের প্রবেশে অনুমতি দিয়ে রায় প্রকাশ করে। তবে দেশটির হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো মন্দিরে নারী প্রবেশে বাধা দেয়। এর প্রতিবাদে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রাস্তায় নেমে আসেন লক্ষাধিক নারী। বিক্ষোভের মাঝেই পুলিশের সাহায্যে দুই নারী বিন্দু আম্মিনি ও কনক দুর্গা মন্দিরের ভেতরে প্রবেশ করেন। দুই নারী প্রবেশ করায় কেরালায় বিক্ষোভ ও সহিংসতা আরও বেড়ে যায়। তবে নারীরা প্রতিবাদ অব্যাহত রেখেছেন। চলমান আন্দোলনের ফলে ভারতের সুপ্রীম কোর্ট নারীদের শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি দিতে বাধ্য হয়।

সারাবাংলা/টিসি/এসএস

Tags: ,

শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন নারীরা
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন