শনিবার ২৬ মে, ২০১৮ , ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫, ১০ রমযান, ১৪৩৯

‘শিক্ষায় পদে পদে ঘুষ-বাণিজ্য’

ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮ | ৮:৪২ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ‘শিক্ষায় পদে পদে ঘুষ-বাণিজ্য’ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুল ইমাম। তিনি বলেছেন, ‘আগে একটি দুটি প্রশ্ন মোবাইলে, ফেসবুকে পাওয়া যেত। এবার বাসভর্তি প্রশ্ন পাওয়া গেল। প্রশ্ন ফাঁসের পুরো বিষয়টি সরকারে নাগালের বাইরে চলে গেছে।’

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কিত আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এই মন্তব্য করেন।

সংসদে স্থিরচিত্র দেখিয়ে ফখরুল ইমাম বলেন, ‘শ্যামলী বাসে যেসব যাত্রী ছিল সবার কাছেই প্রশ্ন ছিল। এ পর্যন্ত ৭টি বিষয়ের সব প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে। শিক্ষার পদে পদে ঘুষ-বাণিজ্য। নানা নামে নানা কৌশলে টাকা আদায় বিভিন্ন অংকের টাকা লেনদেন হচ্ছে।’

এ সময় তিনি শিক্ষামন্ত্রীর নাম উল্লেখ না করে বলেন, ‘দায়িত্বশীল ব্যক্তির সব-সময় সব কথা বলতে হয় না।’

ফখরুল ইমাম নতুন ডাক টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের উক্তি তুলে ধরে বলেন, “নতুন দায়িত্ব পেয়ে মন্ত্রী বলেছেন ‘ডোবা নৌকা ভাসানোর চেষ্টা’ করছেন। তাকে বলতে চাই ডোবা নৌকা কয়বার ভাসাবেন?”

ইতিহাস আবার ফিরে আসে: খালেদা জিয়ার কারাবাস প্রসঙ্গে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের বিরুদ্ধে করা মামলার কথা তুলে ধরে ফখরুল ইমাম বলেন, ‘আমাদের পার্টির চেয়ারম্যান যখন জেলে ছিলেন তার বিরুদ্ধে ৩৮টি মামলায় হয়েছিল। প্রতিটি মামলায় সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে খালাস পেয়েছি তার নিচে কোনো মামলায় খালাস পাইনি। সেই সময় বর্তমান বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদকেও জেলখানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তখন তাকে ১৫ দিন কয়েদিদের সঙ্গে মাটিতে রাখা হয়েছিল। এগুলো শুধু মনে পড়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, ‘শুধু এগুলো মনে হয় এই জন্য যে, ইতিহাস আবার ফিরে আসে। যদি রাগের বশবর্তী হয়ে রাজনীতির বাইরে গিয়ে কোনো কিছু করা হয়— সেটা আবার তার ওপর ফিরে যায়।’

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘রাজনীতিতে ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। তাই ক্ষমতাসীনদেরও স্মরণ করিয়ে দিতে চাই।’

সারাবাংলা/এইচএ/আইজেকে

আরও পড়ুন