বুধবার ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং , ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

সাংবাদিকদের এত ভয় কেন, প্রশ্ন আইসিটি মন্ত্রীর

সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮ | ৩:৪২ অপরাহ্ণ

।। সাভার করেসপন্ডেন্ট ।।

সাভার : ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গণমাধ্যম বা কারো মত প্রকাশের স্বাধীনতা হরণের জন্য করা হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, ‘এই আইন ডিজিটাল অপরাধ দমনের জন্য, যা সকল নাগরিকের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে।’

রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সাভারের আশুলিয়ার জিরাবোতে বেসরকারি মোবাইল ফোন কোম্পানি সিম্ফনি’র কারখানার কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘এ আইন নিয়ে সাংবাদিকদের কেন এত ভয়? তার মানে কি সাংবাদিকরা ডিজিটাল অপরাধ করবেন আর তাদের বিচার হবে না?’

এ সময় বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিকদের সমালোচনা করে প্রকৃত সাংবাদিক নির্ধারণে সাংবাদিক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘এক সময় আমাদের আমদানির ওপর নির্ভর করতে হলেও আজ আমরা দেশেই পণ্য উৎপাদন করে বিদেশের মাটিতে রফতানি করছি; যা আমাদেরকে উচ্চপর্যায়ে নিয়ে গেছে।’

এর আগে ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে কারখানায় স্বাগত জানান এডিসন গ্রুপের চেয়ারম্যান আমিনুর রশীদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকারিয়া শাহীদ এবং পরিচালক এসএম মোর্শেদুজ্জামান।

মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি ও বৈশাখী টেলিভিশনের চিফ নিউজ এডিটর সাইফুল ইসলাম। পরে সফরসঙ্গীদের নিয়ে সিম্ফনি মোবাইল ফোন কারখানার প্রোডাকশন লাইন, গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগ, মাননিয়ন্ত্রণ বিভাগ ও টেস্টিং ল্যাব ঘুরে দেখেন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

সিম্ফনি জানিয়েছে, আশুলিয়ার পুকুরপাড়ে ৫৭ হাজার বর্গফুট জায়গাজুড়ে গড়ে তোলা হয়েছে এডিসন ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের কারখানা। স্মার্টফোন কারখানাটিতে প্রাথমিকভাবে বার্ষিক ৩০-৪০ লাখ ইউনিট হ্যান্ডসেট উৎপাদন করার পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে।

এ সময় ডাক টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হকসহ সিম্ফনি’র ঊধ্বর্তন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/এসএমএন/একে

Tags: , ,

সাংবাদিকদের এত ভয় কেন, প্রশ্ন আইসিটি মন্ত্রীর
সাংবাদিকদের এত ভয় কেন, প্রশ্ন আইসিটি মন্ত্রীর
সাংবাদিকদের এত ভয় কেন, প্রশ্ন আইসিটি মন্ত্রীর