রবিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং , ১২ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৭ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সাত দিন পেছালো নির্বাচন, ভোট ৩০ ডিসেম্বর

নভেম্বর ১২, ২০১৮ | ১২:৪২ অপরাহ্ণ

।। স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: আগামী সংসদ নির্বাচনের তারিখ পিছিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২৩ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (১২ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) প্রদর্শনী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা ভোটের নতুন তারিখ ঘোষণা করেন।

সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময়ও বৃদ্ধি করেছে নির্বাচন কমিশন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন রাখা হয়েছে ২৮ নভেম্বর। যা আগে ছিল ১৯ নভেম্বর।

নতুন ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই চলবে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এরপর ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত ইসি কর্তৃক ঘোষিত যোগ্য প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন। আর এর পরদিন ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে প্রার্থীদের মধ্যে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত ৮ নভেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন সিইসি কে এম নুরুল হুদা। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৩ ডিসেম্বর এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু এই স্বল্প সময়ে নির্বাচনের পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব নয় জানিয়ে নির্বাচন এক মাস পিছিয়ে দিতে ইসিকে অনুরোধ জানায় বিএনপি, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোট। এছাড়া যুক্তফ্রন্টও নির্বাচন এক সপ্তাহ পেছানোর অনুরোধ জানায়।

নির্বাচন পেছানোর দাবি বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের তারিখ পেছানোর এখতিয়ার কমিশনের। ইসি যদি নির্বাচন পেছায় তাহলে আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি থাকবে না।’

পুনঃতফসিলের বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘সকালে অন্য কমিশনারদের সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’ তবে ওই সময় মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই, প্রতীক বরাদ্দ, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পরিবর্তিত তারিখ জানানো হয়নি।

পরে সোমবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশন থেকে জারি করা প্রজ্ঞাপনে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট বাকি তারিখগুলো ঘোষণা করা হয়।

সারাবাংলা/জিএস/এমও/একে

আরও পড়ুন

ভোট ২৩ ডিসেম্বর

Tags: , ,

সাত দিন পেছালো নির্বাচন, ভোট ৩০ ডিসেম্বর
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন