শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৬ আশ্বিন, ১৪২৫, ৯ মুহররম, ১৪৪০

সুয়ারেজের গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে উরুগুয়ে

জুন ২০, ২০১৮ | ৯:৪৮ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক ।।

রুস্তভ-ন-দন্যুতে রাশিয়া বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে মাঠে নেমেছে উরুগুয়ে এবং সৌদি আরব। গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে মিশরের বিপক্ষে ১-০ গোলের ব্যবধানে জয় তুলে পয়েন্ট তালিকায় এগিয়ে আছে কাভানি-সুয়ারেজদের উরুগুয়ে। লুইস সুয়ারেজের একমাত্র গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় উরুগুয়ে।

আজ সৌদির বিপক্ষে জিতলে দুইবারের বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ী উরুগুইয়ানরা দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট কাটবে। তাতে, বিদায় নিতে হবে সৌদি এবং মিশরকে। টানা দুই ম্যাচ জেতা স্বাগতিক রাশিয়া ইতোমধ্যেই দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট অনেকটাই নিশ্চিত করেছে।

ম্যাচের ১২তম মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ পেয়েছিলেন উরুগুয়ের তারকা কাভানি। সতীর্থের বাড়ানো বলে শট নিলে সেটা গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। ম্যাচের ২৩ মিনিটের মাথায় লিড নেয় উরুগুয়ে। কার্লোস সানচেজের কর্নার থেকে উড়ে আসা বল আনমার্ক থাকা বার্সেলোনার তারকা সুয়ারেজ পান। বাঁপায়ের আলতো টোকায় জালে জড়িয়ে দেন তিনি। সৌদির গোলরক্ষক বল ক্লিয়ার করতে আগেই জাল ছেড়ে দেওয়ায় সুয়ারেজের কোনো সমস্যাই হয়নি দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে নিতে।

২৭ মিনিটের মাথায় হাতাম বাহরিবের দারুণ একটি সুযোগ নষ্ট হলে সমতায় ফেরা হয়নি সৌদির। দুই মিনিট পর আবারো বাহবিরের ঝলক। এবার আল শাহরানিকে বল বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু, উরুগুয়ের সামলে উঠা ডিফেন্স সে যাত্রায় রক্ষা করে দলকে। ৩৮ মিনিটের মাথায় গোলবারের ৩০ গজ দূর থেকে অযথাই শট নেন সৌদির আল দৌওসারি। গোলবারের উপর দিয়ে বল চলে গেলে কোনো পরীক্ষাই দিতে হয়নি উরুগুয়ের গোলরক্ষক মুসলেরাকে।

বিরতির আগে ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোনো গোছালো আক্রমণ না হলে দুই দলই গোলের দেখা পায়নি। ফলে, ১-০ গোলের লিড নিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে।

প্রথম বিশ্বকাপে ঘরের মাঠে চ্যাম্পিয়ন ছিল উরুগুয়ে, প্রথম চারবারের দুবারই শিরোপা উঠেছে তাদের হাতে। এরপর লম্বা একটা সময় বিস্মৃতিতে হারিয়ে যাওয়ার পর উরুগুয়ে আবার ফিরেছে বিশ্বকাপে। তবে নিজেদের দিনে যে কোনো দলকেই বিপদে ফেলার সামর্থ্য আছে সুয়ারেজ-কাভানিদের। বিশ্বের সেরা ফরোয়ার্ডদের দুজনই একসঙ্গে আছেন। অন্য অনেক দলেই যেমন দুজন বিশ্বমানের স্ট্রাইকারকে একসঙ্গে খেলাতে গিয়ে হিমশিম খেয়ে যান কোচরা, উরুগুয়ের তেমন হয়নি। কাভানি-সুয়ারেজের যুগলবন্দিই তাদের বড় সম্পদ। তবে মধ্যমাঠ ঠিকঠাক খেললে ভালো কিছুর আশা উরুগুয়ে করতেই পারে। বিশ্বকাপে ১২ বার অংশ নিয়ে ২ ফাইনাল খেলে ২ বারই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল উরুগুয়ে। এবারের আসরের শুরুটা অনেকটা উজ্জ্বলই হয়েছে তাদের।

অন্যদিকে, ২০০৬ সালে সর্বশেষ অংশ নেয়ার পর এবারের আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে ৫-০ গোলে হেরেছে সৌদি আরব। সেদিক থেকে উরুগুয়ের চেয়ে যে তারা অনেকটা পিছিয়ে থাকছে, এটা বলাই যায়। ১৯৯৪ থেকে টানা চার বিশ্বকাপে তারা ছিল নিয়মিত। এরপর এক যুগেরও বিরতির পর সৌদি আরব আবার ফিরছে বিশ্বকাপে। তবে বিশ্বকাপে কতটুকু কী করতে পারবে সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। বিশ্বকাপে ৪ বার অংশ নিয়ে ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপে শেষ ষোলোতে ওঠাই ছিল সৌদি আরবের সেরা অর্জন।

সারাবাংলা/এমআরপি

সুয়ারেজের গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে উরুগুয়ে
সুয়ারেজের গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে উরুগুয়ে