রবিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং , ১২ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সূর্যসেন হলে হিমায়িত মাংস, পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠাল কর্তৃপক্ষ

ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯ | ৫:২৯ অপরাহ্ণ

।। ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট।।

ঢাবি: কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মাস্টারদা সূর্যসেন হলে রান্নার জন্য হিমায়িত মাংস নিয়ে আসলে তা আটক করে শিক্ষার্থীরা। পরে তারা ওই মাংস হল কর্তৃপক্ষের কাছে সোপর্দ করে। হল কর্তৃপক্ষ সেই মাংসের গুণগত মান ঠিক আছে কি না সেটা পরীক্ষার জন্য বিএসটিআই ল্যাবে পাঠিয়েছে।

রোববার (১০) ফেব্রুয়ারি দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী ও সূর্যসেন হলের আবাসিক শিক্ষক সূত্রে জানা গেছে, ক্যান্টিন মালিক লোকমান হল কর্তৃপক্ষকে অবহিত না করে ক্যান্টিনে রান্নার জন্য হিমায়িত মাংস নিয়ে আসেন। হলের কয়েকজন শিক্ষার্থী বস্তায় জমাটকৃত মাংসকে পচা মাংস সন্দেহে বস্তাসহ মাংস সরবরাহকারীকে হল অফিসে সোপর্দ করে।

মাংস সরবরাহকারী আলী আকবর জানান, ‘তিনি ইগলু কোম্পানির কাছ থেকে মাংস কিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি আবাসিক হল ও বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে বিক্রি করেন। কিন্তু তিনি ইগলু কোম্পানির প্রতিনিধি নন। তখন হল কর্তৃপক্ষ ইগলু থেকে মাংস কেনার রশিদ রশিদ দেখাতে বলেন।’

বিজ্ঞাপন

পরে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল মাংসের গুণগত মান পরীক্ষার জন্য এককেজি মাংস বিএসটিআই ল্যাবে পাঠান। পরে ওই মাংস সরবরাহকর্তা আলী আকবর ইগলু থেকে মাংস কেনার রশিদ দেখালে হল কর্তৃপক্ষ তাকে ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে ক্যান্টিন মালিক লোকমান সারাবাংলাকে জানান, ‘কয়েকমাস ধরে তিনি হলে ২৭৫ টাকা কেজি দরের হিমায়িত মাংস কিনে রান্না করেন। তবে তিনি কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়েই এটা করছেন বলেও স্বীকার করেন।

এ বিষয়ে হলের আবাসিক শিক্ষক বাহলুল বলেন, ‘মাংসের মান পরীক্ষার জন্য ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সারাবাংলা/কেকে/এমআই

সূর্যসেন হলে হিমায়িত মাংস, পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠাল কর্তৃপক্ষ
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন