বৃহস্পতিবার ১৬ আগস্ট, ২০১৮, ১ ভাদ্র, ১৪২৫, ৪ জিলহজ্জ, ১৪৩৯

21st February

সোয়াফ প্রশ্নে ‘স্বস্তিতে’ বাফুফে

মে ২৭, ২০১৮ | ৯:১১ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সৌদি আরবের ডাকে সাড়া দিয়ে সাউথ ওয়েস্ট এশিয়া ফুটবল ফেডারেশন (সোয়াফ) গঠন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বেশ বিপাকেই পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। ‘দম বন্ধ হওয়ার জোগাড়’ সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের। তবে, সোয়াফ প্রশ্নে এএফসির এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) স্পষ্ট মতামতে অনেকটা চাপমুক্ত হয়েছে বাফুফে।

এএফসি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, সোয়াফের ফলে যদি আঞ্চলিকে জোটগুলোর কোনও ক্ষতি না হয় বা প্রভাব না পড়ে তাহলে এতে সহযোগিতা করবে এশিয়ার সর্বোচ্চ সংগঠন। সংস্থাটির সভাপতি শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা সম্প্রতি সৌদি আরব ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি আদেল ইজ্জতের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। সেখানে সোয়াফ গঠন প্রশ্নে অনেক আলোচনা হয়েছে। এএফসি তাতে সায়ও দিচ্ছে। তবে, বলে দিয়েছে যাতে নিয়মের ভঙ্গ না হয়।

এদিকে এরই মধ্যে ৩১ মে জেদ্দাতে সোয়াফের প্রথম সভার ডাক দেয়া হয়েছে। বাকী দেশগুলোকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আমন্ত্রণ পেয়েছে বাফুফেও। অবশ্য দেশের সর্বোচ্চ সংগঠক সভায় যোগ দিবে কিনা তা এখনও নিশ্চিত নয়।

তবে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ সোয়াফে যোগ দিলে তেমন সমস্যা হবে না। তা গতকাল এএফসির ওয়েবসাইটে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন এএফসি সভাপতি শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা। সৌদি আরব ফুটবল ফেডারেশনের (সাফ) সভাপতি আদেল ইজ্জতের সাথে মিটিং করে তেমন বার্তাই সদস্য দেশগুলোকে দিয়েছেন এএফসি সভাপতি।

সভায় শেখ সালমানের বক্তব্য ছিল, ‘যদি এএফসির আঞ্চলিক অবকাঠামোর ক্ষতি না হয় এবং এএফসির নিয়ম মেনে চলা হয় তাহলে সোয়াফ গঠনে কোনো সমস্যা নেই।’ তিনি জানান, আরব গলফ কাপ ফেডারেশন থেকে বেরিয়ে গঠিত হয়েছে সোয়াফ। গলফ কাপ ফেডারেশন এএফসির কোনো অংশ নয়। অথচ তারা ফুটবলের অনেক উপকার করছে।

বাংলাদেশ সোয়াফে থাকলে অর্থকড়ি যেমন পাবে তেমনি অনেক ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। কিন্তু সমস্যা হলো সৌদি আরব চায় না সোয়াফ গঠনের পর সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) নামে কোনো সংগঠন থাকুক, যা সাফ কর্তৃপক্ষ মেনে নেবে না।

সাফ আলাদা একটি আঞ্চলিক একটি জোট। সম্ভবত এ জন্যই আঞ্চলিক অবকাঠামো না ভাঙতে এএফসি সভাপতির এ নির্দেশনা। তার পরামর্শ, আশা করি, সোয়াফ কোনো প্রভাব ফেলবে না পূর্ব, পশ্চিম, দক্ষিণ, মধ্য এশিয়া এবং আসিয়ান অঞ্চলের। সাফ সোয়াফের সাথে একীভূত করতে গেলে এ জন্য সভা এবং এজিএম ডাকতে হবে সাফকে। এএফসির নির্বাহী কমিটি এবং এজিএমে তা পাস হতে হবে।

উল্লেখ্য বাংলাদেশসহ ১০-১২টি দেশকে নিয়ে গঠিত হয় সোয়াফ। নতুন এ সংস্থা সদস্য দেশগুলোকে বছরে চার কোটি টাকা দিতে চায় ফুটবল উন্নয়নে। এখন এএফসি আর সোয়াফের মধ্যে আদর্শের সংঘর্ষ না হলেই হয়।

সারাবাংলা/জেএইচ

সোয়াফ প্রশ্নে ‘স্বস্তিতে’ বাফুফে
সোয়াফ প্রশ্নে ‘স্বস্তিতে’ বাফুফে