শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৬ আশ্বিন, ১৪২৫, ৯ মুহররম, ১৪৪০

স্ক্রিনশট প্রকাশ করায় মামলা করলেন গাজী রাকায়েত

মার্চ ২০, ২০১৮ | ৩:৫৮ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক ।।

ফেসবুক আইডি থেকে স্ক্রিনশট প্রকাশ করার অভিযোগে এক নারী মানবাধিকারকর্মীর বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় মামলা করেছেন নাট্যকার ও পরিচালক গাজী রাকায়েত। গত ১৬ মার্চ রাজধানীর আদাবর থানায় তিনি এই মামলা করেন।

আদাবর থানায় যোগাযোগ করে জানা গেছে গাজী রাকায়েতের করা মামলার নম্বর ১৮। আর মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক (এসআই) মাইকেল বনিক সারাবাংলা ডটনেটকে বলেন, ‘১৬ তারিখ রাতে নাট্যকার গাজী রাকায়েত ৫৭ (২) ধারায় একটি ফেসবুক লিংকের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন। বিষয়টি অনুসন্ধান করে দেখছি আমরা।’

এদিকে মামলার এজাহারের একটি প্রতিলিপি এসেছে সারাবাংলা ডট নেটের হাতে। সেখানে দেখা গেছে গাজী রাকায়েতের অভিযোগ। তিনি অভিযোগ করেন, ‘গত ৯ মার্চ দুপুরে এক তরুণী ফেসবুকে তার বিরুদ্ধে অশ্লীল, ইঙ্গিতপূর্ণ ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কয়েকটি কথোপকথনের সংলাপ ছবি আকারে প্রকাশ করে।’

এজাহারে গাজী রাকায়েত উল্লেখ করেন, তিনি পেশায় একজন শিল্পী, চলচ্চিত্র নির্মাতা এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পুরস্কারপ্রাপ্ত। এই সংলাপের ছবি সম্বলিত অ্যালবাম অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে আমার অর্জিত সম্মানকে বিনষ্ট করার লক্ষ্যে প্রকাশ করা হয়েছে। এটি সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত। এছাড়া এ ধরনের কর্মকাণ্ড বাংলাদেশের সামগ্রিক সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ভাবমূর্তির জন্য হুমকিস্বরূপ।

এই ঘটনার কদিন আগে ওই নারী মানবাধিকারকর্মী ফেসবুক মেসেঞ্জারে গাজী রাকায়েতের সঙ্গে কথোপকথনের কয়েকটি স্ক্রিনশট প্রকাশ করেন। সারাবাংলাকে ওই মানবাধিকারকর্মী জানান, তাঁর এক ফেসবুক বন্ধুর কথোপকথন এটি। ওই নারী বিভিন্ন ব্যক্তিগত সমস্যায় এই স্ক্রিণশট প্রকাশ না করায় তিনি প্রকাশ করেছেন। নারী মানবাধিকারকর্মী বলেন, ‘স্ক্রিণশটগুলো দেখলেই বোঝা যাবে অভিনেতা গাজী রাকায়েত এক রাতে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে কথোপকথনে ওই নারীর সঙ্গে অশালীন কথাবার্তা বলেছেন। অভিনেতার এই অশালীন আচরন ফাঁস করতে চেয়েছিল আমার বন্ধুটি। কিন্তু নানা সমস্যার কারণে সে নিজে ওই স্ক্রিণশটগুলো দিতে পারেনি।’

নারী মানবাধিকারকর্মীর ওই পোস্টের পর এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। গাজী রাকায়েত তার ম্যাসেঞ্জার থেকে সেসব কথোপকথনের কথা স্বীকার করলেও সেটি নিজে করেননি বলে দাবি করেছেন। তিনি দাবি করেন, তার ফেসবুক আইডি পরিচিত আরও কয়েকজন ব্যবহার করেন, তাদেরই কেউ এই কাজ করে থাকতে পারেন।

এদিকে মামলার পর গাজী রাকায়েতকে ফোন দিলে তাঁর নম্বর বন্ধ পাওয়া গেছে।

সারাবাংলা/এসবি/পিএ

স্ক্রিনশট প্রকাশ করায় মামলা করলেন গাজী রাকায়েত
স্ক্রিনশট প্রকাশ করায় মামলা করলেন গাজী রাকায়েত