শুক্রবার ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ৬ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১২ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী দেখে এলেন পদ্মা সেতু

আগস্ট ১৬, ২০১৮ | ৩:৫৬ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার (১৫ আগস্ট) গিয়েছিলেন টুঙ্গীপাড়া। জাতির জনকের মৃত্যুদিবসে টুঙ্গীপাড়ায় তার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে। সঙ্গে ছিলেন তার ছোট বোন শেখ রেহানা।

এরপর যখন ফিরছিলেন ঢাকায়, তখন তাদের বহনকারী হেলিকপ্টারটি উড়ে আসছিল পদ্মা নদীর ওপর দিয়ে।

সেখানে হেলিকপ্টারের জানালা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী তাকিয়ে দেখছিলেন দেশের এক স্বপ্নের বাস্তবায়ন। পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি দেখছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

বিজ্ঞাপন

হেলিকপ্টারের জানালা থেকে প্রধানমন্ত্রী তাকিয়ে আছেন বাইরে। দূরে দেখা যাচ্ছে এরই মধ্যে কাঠামো পাওয়া পদ্মা সেতুর একাংশ। এমনটা ধরা পড়েছে ফোকাসবাংলার ক্যামেরায়।

উল্লেখ্য, গত জুনে পঞ্চম স্প্যান বসানোর পর পদ্মা সেতুর ৭৫০ মিটার এখন দৃশ্যমান। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এই সেতুর আট ভাগের একভাগ এখন বাস্তব। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানীকে সরাসরি সংযুক্ত করার এই মেগা প্রকল্পের পঞ্চম স্প্যানটি বসেছে জাজিরা প্রান্তে ৪১ ও ৪২ নম্বর খুঁটির ওপর।

এর আগে, ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যানটি বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। পরে এ বছরের ২৮ জানুয়ারি ৩৮ ও ৩৯ নম্বর খুঁটিতে বসানো হয় দ্বিতীয় স্প্যান। গত ১১ মার্চ ৩৯ ও ৪০ নম্বর খুঁটির ওপর বসানো হয় তৃতীয় স্প্যান। সর্বশেষ ১৩ মে ৪০ ও ৪১ নম্বর খুঁটির ওপর চতুর্থ স্প্যান বসানো হলে সেতুর ৬০০ মিটার দৃশ্যমান হয়।

পদ্মা সেতু প্রকল্প নিয়ে দুর্নীতি আর অনিয়মের অভিযোগে বিশ্বব্যাংক ঋণ দিতে অস্বীকৃতি জানানোয় শেষ পর্যন্ত নিজেদের অর্থায়নে এই সেতু নির্মাণের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার সেই ঘোষণা অনুযায়ী অগ্রাধিকারভিত্তিক প্রকল্প হিসেবে এগিয়ে যাচ্ছে এর কার্যক্রম। হেলিকপ্টারে করে টুঙ্গীপাড়া থেকে ফেরার পথে সেই প্রকল্পেরই অগ্রগতির বাস্তবচিত্র দেখে নিশ্চয় প্রধানমন্ত্রীর চোখে দেশকে নিয়ে গর্বের ঝিলিক খেলে গিয়েছিল।

সারাবাংলা/এমএম

প্রধানমন্ত্রী দেখে এলেন পদ্মা সেতু
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন