সোমবার ২০ মে, ২০১৯ ইং , ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

মায়ের মাথা কেটে নিয়ে পালালো ছেলে, পরে গ্রেপ্তার

আগস্ট ২৬, ২০১৮ | ৫:১০ অপরাহ্ণ

।। বিচিত্রা ডেস্ক ।।

ঘরে খাবার না থাকায় ছেলেকে ভৎর্সনা করেছিলেন বৃদ্ধা মা। আর এতেই রেগে মায়ের মাথা কেটে ফেলে ছেলে। ঘটনা এখানেই শেষ নয়। মায়ের মাথা কাটার পর প্রতিবেশিরা এই দৃশ্য দেখে ফেলায় কাটা মাথা কাপড়ের পুটলিতে পেঁচিয়ে পালানোর চেষ্টা করে ছেলে। নারকীয় ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের দুমকি জেলায়।

দুমকির রামগড়া পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা বিজারা সিলভামানির বরাতে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গত শুক্রবার সিলাথা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। ঘটনায় নিহতের নাম তুলসি মারান্ডি (৬৫)। আর অভিযুক্ত ছেলের নাম চম্পাই মারান্ডি (৩৬)।

পুলিশ কর্মকর্তা বিজারা জানান, তুলসি মারান্ডি পেশায় পরিচ্ছন্নতাকর্মী ছিলেন। ঘটনার দিন বিকেলে ঘরে খাবার না থাকায় এ নিয়ে ছেলে চম্পাইকে ভৎর্সনা করেছিলেন তুলসী। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো দা দিয়ে মায়ের মাথা কেটে ফেলে ছেলে। পরে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে মায়ের কাটা মাথা কাপড়ে পেঁচিয়ে নিয়ে অস্ত্রসহ পালিয়ে যায় চম্পাই। ঘটনার দুই ঘন্টা পরে গ্রামের বাইরে একটি সড়ক থেকে কাটা মাথা ও ধারালো অস্ত্রসহ চম্পাইকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত চম্পাই বেকার ছিলেন। বৃদ্ধা মায়ের রোজগারে খেতেন তিনি। তারপরও নানা কারণে মায়ের ‍ওপর নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। গ্রেপ্তার হওয়া চম্পাইকে দ্রুতই আদালতে তোলা হবে বলেও জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা বিজারা।

সারাবাংলা/ এসবি

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন