বিজ্ঞাপন

বোর্ডের হাতে সাব্বির-নাসির-মোসাদ্দেকের ভাগ্য

আগস্ট ৩১, ২০১৮ | ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

।। স্পোর্টস ডেস্ক ।।

বিজ্ঞাপন

নাসির হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও সাব্বির রহমানকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জরুরি তলব করেছে। ঠিক কি কারণে তাদের ডাকা হয়েছে সেটা জানানো না হলেও সাম্প্রতিক সময়ে তাদের ওপরে ওঠা বিতর্কিত অভিযোগের বিষয়গুলো সামনে এসেছে-সেটা একরকম নিশ্চিত। শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটি তাদের নিয়ে বসবে। শুনানির পরই তাদের ব্যাপারে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

ব্যক্তিগত জীবনে বিশৃঙ্খলার অভিযোগ ওঠা এই তিন ক্রিকেটারের ভাগ্যে কি আছে সেটা বলা মুশকিল। তবে, নাসির-মোসাদ্দেক পার পেয়ে গেলেও সাব্বিরের রয়েছে কঠিন শাস্তির সম্ভাবনা। এরই মধ্যে এশিয়া কাপের স্কোয়াড থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ইনজুরিতে রয়েছেন নাসির আর এশিয়া কাপের স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন মোসাদ্দেক। তবে, এই তিনজনের ব্যক্তিগত জীবনের বিশৃঙ্খলা থেকে ফেরাতে বিসিবি আগের মতোই কঠোর আছে বলে জানিয়েছেন সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিজ্ঞাপন

সাব্বির আর বিতর্ক যেন হাত ধরেই চলছিল। কদিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক সমর্থককে নিজের ব্যক্তিগত আইডি থেকে অকথ্য ভাষায় গালাগালির অভিযোগ ওঠে সাব্বিরের বিরুদ্ধে। তার আগে আফগানিস্তান সিরিজে সতীর্থ মেহেদি হাসান মিরাজের সঙ্গে তার মারামারির ঘটনা জানা যায়। শুধু তাই নয়, গত ২১ ডিসেম্বর রাজশাহীতে ঘরোয়া লিগ খেলতে গিয়ে এক সমর্থককে পেটানো, আম্পায়ারদের হুমকি দিয়ে ঘরোয়া লিগ থেকে ৬ মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞায় পড়েছিলেন সাব্বির।

এরপর বাদ পড়েন বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও। সাব্বিরের বিরুদ্ধে ছিল নারীঘটিত কেলেঙ্কারী। একাধিকবার পড়েছেন বড় অংকের আর্থিক জরিমানায়। রাজশাহীর ঘটনায় সাব্বিরকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা এবং পাশাপাশি ৬ মাস ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করা হয়েছিল। এবার, বিসিবি সভাপতির সঙ্গে কয়েকজন পরিচালকের অনানুষ্ঠানিক এক সভায় সাব্বিরকে ১ বছর থেকে ৩ বছর পর্যন্ত বহিষ্কারের প্রস্তাব করা হয়। কিন্তু, নতুন কোচ স্টিভ রোডস এবং সিনিয়র ক্রিকেটারদের অনুরোধে সেটা আমলে নেওয়া হয়নি বলে বাতাসে খবর বের হয়। এছাড়া, আগামী বছর ইংল্যান্ডের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে সাব্বিরের থাকাটা দলের জন্য ভালো হতে পারে ভেবে দীর্ঘ সময়ের জন্য সাব্বিরকে নিষেধাজ্ঞা না-ও দেওয়া হতে পারে বলে ক্রিকেট পাড়ায় গুঞ্জন। ৬ মাসের আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হতে পারে সাব্বিরকে।

সাব্বিরের এমন ঘটনার সঙ্গে ব্যাটিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেকের বিরুদ্ধেও সম্প্রতি উঠেছে গুরুতর অভিযোগ। তালাকপ্রাপ্ত মোসাদ্দেকের স্ত্রী সামিরার করা ১০ লাখ টাকা যৌতুক মামলার বিষয়টি জানাজানি হয়। আদালতে দোষী প্রমাণিত হলেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বিসিবি। এদিকে, বোর্ডকে না জানিয়ে বন্ধুর বিয়েতে গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে ফুটবল খেলে পায়ে চোট নিয়ে ফিরেছিলেন নাসির। এরপর বোর্ডকে সেটা না জানানোয় সমালোচনা ওঠে। পরে বোর্ডের টাকায় তার চিকিতসা করানো হয়। এরই মধ্যে বেপরোয়া উঠতি এক মডেলের সঙ্গে কেলেঙ্কারীতে জড়িয়ে পড়েন নাসির। তার বিরুদ্ধে ওঠা নারীঘটিত অভিযোগ কতটা সত্যি, বিসিবি সে ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েই তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন